আজ ব্যাংক-বীমার শেয়ারদর ঊর্ধ্বমুখী 

আজ ব্যাংক-বীমার শেয়ারদর ঊর্ধ্বমুখী 
আজ ব্যাংক-বীমার শেয়ারদর ঊর্ধ্বমুখী 

নিউজ ডেস্ক: শেয়ার বাজারের সূচক আজ বৃহস্পতিবার  সকাল ১০টায় লেনদেন শুরুর প্রথম ঘণ্টায় ব্যাংক-বীমার শেয়ারদরের ওঠানামায় সূচকে বড় ধরনের অস্থিরতা ছিল।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় দিনের লেনদেনের প্রথম তিন ঘণ্টা শেষে প্রধান শেয়ারবাজার ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ৪৫ পয়েন্ট বেড়ে ৬০৮১ পয়েন্টে অবস্থান করতে দেখা গেছে।

ব্যাংক-বীমার শেয়ারদর বাড়তে শুরু করলে সূচকও ঊর্ধ্বমুখী হয়। 

সকাল ১০টায় লেনদেন শুরুর ১০ মিনিট পর সূচকটি গতকালের তুলনায় ২৭ পয়েন্ট বেড়ে ৬০৬২ পয়েন্টে উঠেছিল। কিন্তু পরে ২০ মিনিটে সূচকটি আগের অবস্থান থেকে ৬২ পয়েন্ট হারিয়ে ৬০০০ পয়েন্টে নামে। 

সকালের পর থেকে ব্যাংক ও বীমার অধিকাংশ শেয়ারের দরবৃদ্ধি পেতে থাকলে সূচকটিও ঊর্ধ্বমুখী হয়।

ডিএসইতে দুপুর ১টায় ১৮০ শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের দরবৃদ্ধির বিপরীতে ১৫১টিকে দর হারিয়ে কেনাবেচা হতে দেখা গেছে। এ সময় দর বেড়ে কেনাবেচা হচ্ছিল ৪১টি শেয়ার ও ফান্ড। 

প্রথমার্ধে তিন ঘণ্টায় ৯৭৭ কোটি টাকার শেয়ার কেনাবেচা হয়েছে। গত কয়েকদিনের তুলনায় আজকের লেনদেনের পরিমাণ বেশ কম।

পর্যালোচনায় দেখা যায়, ব্যাংক খাতের ৩১টি কোম্পানির মধ্যে ২৯টিরই শেয়ার দর বেড়ে কেনাবেচা হচ্ছিল। এ খাতের সার্বিক দরবৃদ্ধির হার ছিল ২.৭৯ শতাংশ।

তালিকাভুক্ত বীমা খাতের ৫০টি কোম্পানি দুপুর ১টা পর্যন্ত এর ৪৯টি লেনদেনে এসেছিল। এগুলোর মধ্যে ৪৩টিকে দর বেড়ে কেনাবেচা হতে দেখা গেছে। 

এ খাতের রিলায়েন্স, গ্রীনডেল্টা, ঢাকা, সোনারবাংলা, পূরবী, পাইওনিয়ার ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার ৮ থেকে ১০ শতাংশ দর বেড়ে কেনাবেচা হতে দেখা গেছে, ছিল দরবৃদ্ধির শীর্ষ তালিকায়। সেইসময় খাতটির সার্বিক শেয়ারদর বেড়ে ছিল ৪ শতাংশ।

এদিকে বড় খাতগুলোর মধ্যে প্রকৌশল খাতের ১১ শেয়ারের দরবৃদ্ধির বিপরীতে ২৯টিকে দর হারিয়ে কেনাবেচা হতে দেখা গেছে। দরপতনের হার ছিল ০.৮৫ শতাংশ।

বস্ত্র খাতের ২৪ শেয়ার দর বেড়ে এবং ২৬টি দর হারিয়ে কেনাবেচা হচ্ছিল। জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতের ২২ কোম্পানির মধ্যে ১৬টি দর বেড়ে এবং ৪টিকে দর হারিয়ে কেনাবেচা হতে দেখা গেছে।

আর একক কোম্পানি হিসেবে ৯ থেকে ১০ শতাংশ দর বেড়ে দরবৃদ্ধির শীর্ষ ১০-এ অবস্থান করছিল-রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স, ডাচ-বাংলা ব্যাংক, বিডি মনোস্পুল পেপার, পেপার প্রসেসিং, গ্রীনডেল্টা ইন্স্যুরেন্স, মুন্নু ফেব্রিক্স, মালেক স্পিনিং, তমিজুদ্দিন টেক্সটাইল, ঢাকা ইন্স্যুরেন্স এবং সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্স।

সী পার্ল হোটেল অ্যান্ড রিসোর্ট কোম্পানির শেয়ার সাড়ে ৭ শতাংশ দর হারিয়ে ছিল দরপতনের শীর্ষে।