মণিরামপুরে চিকিৎসাধীন ৭৪ করোনা রোগী

কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন
কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

মোঃ মনোয়ার হোসেন, যশোর জেলা প্রতিনিধি:  করোনা ভয়াবহ অবস্থার দিকে যাচ্ছে যশোরের মণিরামপুরে। স্বাস্থ্যবিধির প্রতি তোয়াক্কা না করায় প্রতিদিন বাড়ছে রোগীর সংখ্যা। সোমবার একদিনে ২২ জনের শরীরে করোনা পজিটিভ মিলেছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে এ তথ্য জানা গেছে। অপরদিকে গত দু’দিনে মণিরামপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে আরো দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

স্বাস্থ্য ও প প কর্মকর্তা ডা. শুভ্রা রানী দেবনাথ মোঃ মনোয়ার হোসেন যশোর জেলা প্রতিনিধিকে জানিয়েছেন, মণিরামপুরে সোমবার পর্যন্ত ৭৪ জন রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন। এর মধ্যে হাসপাতালে রয়েছেন মাত্র ৩ জন। অন্যরা বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তিনি জানিয়েছেন, জনগণ সচেতন না হলে, মণিরামপুরে খুব সহসা করোনা মহামারি আকার ধারণ করবে।

মশ্মিমনগর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেন জানিয়েছেন, শনিবার চাকলা গ্রামে জেসমিন আরা বিউটি (৫৫) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে করোনায় আক্রান্ত হয়ে। সোমবার পৌরসভাধীন হাকোবা গ্রামে হাসেম আলী মহলদার (৭৫) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে করোনা উপসর্গ নিয়ে। এ অবস্থা থেকে উত্তোরণের জন্য উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ইউনিয়নেরর সকল জনপ্রতিনিধিকে তার নিজ নিজ এলাকায় জনগণকে সজাগ ও সচেতন করার অনুরোধ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সৈয়দ জাকির হাসান বলেন, এ পরিস্থিতিতে দ্রুত উপজেলার করোনা প্রতিরোধ কমিটি সভা করে পরবর্তী কঠোর সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। এদিকে মণিরামপুরে হাট-বাজারে কোথাও স্বস্থ্যবিধি মেনে চলার কোন নমুনা চোখে পড়েনি। মুখে মাস্ক নেই, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাসহ কোন কিছুই মানা হচ্ছে না। ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোতেও এসব ব্যাপারে কোন গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছেনা বলে অভিযোগ রয়েছে।

এ অবস্থা নিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক ফারুক হোসেন বলেন, সরকার এবং রাজনৈতিকভাবে আওয়ামী লীগ জনগণকে সচেতন করার কাজ করে চলেছেন। কিন্তু জনগণ গুরুত্ব দিচ্ছেন না, যখন কারোর প্রতিবেশী আক্রান্ত হচ্ছেন কেবল সেই প্রতিবেশীরাই সাবধানতা অবলম্বন করছেন।