গৌরীপুরে নকল জীবাণুনাশক বাজারজাত করায় জরিমানা

গৌরীপুরে নকল জীবাণুনাশক বাজারজাত করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা
গৌরীপুরে নকল জীবাণুনাশক বাজারজাত করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা

শফিকুল ইসলাম মিন্টু, গৌরীপুর, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি: মাছের নকল জীবাণুনাশক ওষুধ বাজারজাত করার দায়ে ময়মনসিংহের গৌরীপুরে কামরুল মিয়া নামে এক ব্যাক্তিকে ১৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার উপজেলার চুড়ালী গ্রামে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবিদুর রহমান।

জানা গেছে, নাভানা ফার্মাসিউটিক্যালের উৎপাদিত মাছের জীবাণুনাশক অ্যাকুয়াসলভ (ধয়ঁধংড়ষাব) ওষুধটি নকল করে কমমূল্যে বাজারজাত করতো কামরুল মিয়া ও তার ভাই শফিকুল ইসলাম। আসল ওষুধের বোতলে মোড়কে দাম ও মেয়াদোর্ত্তীণের তারিখ লেজার প্রিণ্ট করা থাকে। কিন্তু নকল ওষুধে দাম ও মেয়াদোর্ত্তীণের তারিখ শুধু সিল মেরে দেয়া হত।

এ বিষয়ে অভিযোগ পেয়ে সোমবার চূড়ালী গ্রামে শফিকুলের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ২শ বোতল নকল অ্যাকুয়াসলভ ওষুধ জব্দ করা হয়। শফিকুল বাড়িতে না থাকায় তার ছোট ভাই কামরুলকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে তাকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

নাভানা ফার্মাসিউটিক্যালের রিজিওনাল সেলস ম্যানেজার মিজানুর রহমান বলেন, অ্যাকুয়াসলভ ওষুধটির বাজারে ব্যাপক চাহিদা থাকলেও কয়েক মাস ধরে এর চাহিদা কমে যায়। পরে খোঁজ নিয়ে জানতে পারি ইউন ফার্মাসিউটিক্যালের রিপ্রেজেনটিভ শফিকুল ইসলাম ও তার ভাই কামরুল ওষুধটি নকল করে কমমূল্যে বাজারজাত করছে। এতে করে মাছচাষীরা ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার পাশাপাশি কোম্পানীর সুনামও ক্ষুন্ন হচ্ছিল। পরে বিষয়টি প্রশাসনকে জানানো হয়।

সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবিদুর রহমান বলেন অভিযোগ পাওয়ার পর ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। শফিকুল ইসলাম বাড়িতে না থাকায় তার ভাইকে নকল ওষুধ সহ আটক করার পর জরিমানা করা হয়েছে। জব্দকৃত ওষুধ নষ্ট করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাসান মারুফ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে মাদক সেবন ও সংরক্ষণের দায়ে ৩ জনকে আটক ও ৪০০ গ্রাম গাঁজা জব্দ করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাদের কারাদদন্ডও অর্থদন্ড প্রদান করে।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন গৌরীপুর পৌর শহরের নতুন বাজার মহল্লার আব্দুল মান্নানের ছেলে মোঃ মামুন (৩৫) ১বছর ৬ মাস কারাদন্ড ও ৩ হাজার টাকা অর্থদন্ড, চকপাড়া মহল্লার মৃত আবুল কাশেমের ছেলে সোহাগ মিয়া (২৬) ১ বছর কারাদন্ড ও ২ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করা হয়।

আটককৃত উপজেলার গাভীশিমুল গ্রামের মৃত হেলাল উদ্দিনের ছেলে হাবিবুর রহমান ভ্রাম্যমাণ আদালতে দোষ স্বীকার না করায় তার বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়েরের জন্য তাকে গৌরীপুর থানায় প্রেরণের নির্দেশ প্রদান করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।