মেহেন্দীগঞ্জ ও হিজলায় নদী ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনের দাবী

মেহেন্দীগঞ্জ ও হিজলায় নদী ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনের দাবী
মেহেন্দীগঞ্জ ও হিজলায় নদী ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনের দাবী

নিউজ ডেস্ক:   বরিশাল জেলার মেহেন্দীগঞ্জ ও হিজলা উপজেলায় মেঘনাসহ অন্যান্য নদীর ভাঙ্গন রোধ ও ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনের দাবি জানিয়েছে মেহেন্দীগঞ্জ ও হিজলা উপজেলা নদী ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্ত জনগণ ।

সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সম্মুখে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানান তাঁরা।

মানববন্ধনে বক্তাগন বলেন, “মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলার দক্ষিন উলানিয়া, শুকনাকাঠি, চাঁনপুর, রুকুন্দী সাদেকপুর, শ্রীপুর, চর গোপালপুর, জাঙ্গালিয়া, দরিরচর খাজুরিয়া ও ভাসানচর ইউনিয়নসমূহ এবং হিজলা উপজেলার বড়জালিয়া, হরিনাথপুর, ধূলখোলা, হিজলা গৌরবদী, ইউনিয়নসমূহ প্রধান নদী মেঘনা ও উপ নদী ছাড়াও তেতুলিয়া, গজারিয়া, কালাবদর, মাসকাটা ও লতা নদীদ্বারা ব্যাপক নদী-ভাঙ্গনে এলাকায় বসবাসকারীরা আজ রিক্ত নিঃস্ব ছিন্নমূল হয়ে পড়েছে। এছাড়াও বিগত ৩টি ঘূর্ণিঝড় ও জলোচ্ছাসে স্থানীয় ঘর-বাড়ি, পশুপাখি, ফসলহানীসহ রাস্তাঘাট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ধর্মীয় উপসনালয় হাট-বাজার ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। আগামী ১/২টি বন্যায় হিজলা উপজেলা সদরের অবকাঠামোগুলো নদী-ভাঙ্গনের কবলে পরতে পারে।”

তাঁরা বলেন, “পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়, পানি উন্নয়ন বোর্ড, পরিবেশ-বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীল কর্তৃপক্ষ উক্ত এলাকার প্রতি সচেতন দৃষ্টি রাখলে এবং যথাযথ ভূমিকা পালন করলে নদী-ভাঙ্গনরোধসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করলে আজকে মানুষের জান-মাল নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতে হতো না।”

এ সময় মানববন্ধন থেকে অবিলম্বে নদী-ভাঙ্গনরোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহন এবং জরুরী ভিত্তিতে ক্ষতিগ্রস্থ জনগনের পুনর্বাসনে সর্বাত্মক উদ্যোগ গ্রহণের দাবী জানানো হয়।

মানববন্ধনের দাবির সাথে সংহতি প্রকাশ করে মুঠোফোনে যুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবীন শিক্ষক অধ্যাপক ড. শফিউর রহমান ও সাবেক সচিব জনাব গোলাম মোস্তফা তালুকদার।

সাবেক ছাত্রনেতা নুরুর রহমান জাহাঙ্গীরের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য আরো রাখেন পরিবেশবাদী সংগঠন বাপা’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিহীর বিশ্বাস, সিএলএনবি’র চেয়ারম্যান হারুনূর রশিদ, এডভোকেট শাহানাজ পারভীন জ্যোৎস্ন, এডভোকেট আয়েশা বেগম, এডভোকেট ফাতেমা আক্তার নিশি, হাসিবুর রহমান নেওয়াজ, মিজানুর রহমান সুমন, হাসান মাহমুদ, অলিউদ্দিন দেওয়ান সুমন, জহির উদ্দিন, মোঃ মাসুদ, দেলোয়ার হোসেন, মোঃ ফারুক খান, ওমর আলী, আক্তার হোসেন প্রমুখ।