আশুলিয়ায় জমি দখলে বাঁধা দেওয়ায় ৮ জনকে কুপিয়ে জখম

আশুলিয়ায় জমি দখলে বাঁধা দেওয়ায় ৮ জনকে কুপিয়ে জখম
আশুলিয়ায় জমি দখলে বাঁধা দেওয়ায় ৮ জনকে কুপিয়ে জখম

শাকিল শেখ, উপজেলা প্রতিনিধি, সাভার(ঢাকা):  সাভারের আশুলিয়ায় জমি দখলে বাঁধা দেওয়ায় নারীসহ একই পরিবারের ৭ জনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে একই এলাকার ১২ থেকে ১৩ জনের একটি বাহিনী। এঘটনায় থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী তাহমিনা আক্তার রিতা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক এসআই আল মামুন কবির। এর আগে বুধবার (১৬ জুন) রাত সাড়ে ৯ টার দিকে আশুলিয়ার উত্তর আউকপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- উত্তর আউকপাড়া শামসুল হক (৫০), তার স্ত্রী তাহমিনা আক্তার রিতা (৩০), ভাই গোলাম মোস্তফা (৪০), নসিম (৪৫), ভাতিজা নাহিল (২১), শাকিব (২২)। তারা সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

অভিযুক্তরা হলেন একই এলাকার মৃত আবুল হোসেনের ছেলে সামাদ (৪৫), মৃত মাইমুদিম মুখির ছেলে মোঃ নাসির (৪০), লিয়াকত আলী মোঃ খোকন মিয়া (৩৮), সুমন মিয়া (৩৫), মৃত কুদ্দুস আলীর ছেলে নাসির মিয়া (৩০), মৃত আবুল হোসেনের ছেলে হাবিবুর রহমান হাবু (৩৬), বাবুল হোসেন (৫০) ও একই এলাকার মোঃ সবুজ (২১)।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘ দিন ধরে প্রতিবেশী অভিযুক্তরা শামসুল ইসলামের পৈত্রিক জায়গা দখলের চেষ্টা করে আসছে। এই জায়গা নিয়ে ভুক্তভোগীর সাথে বিরোধ ও শত্রুতা তাদের দীর্ঘদিনের। এই বিরোধের জের ধরে অভিযুক্তরাসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৫ থেকে ৬ জন, প্রত্যেকের হাতে রামদা, চাইনিজ কুড়াল, লোহার রড ইত্যাদি দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে রাত সাড়ে ৯ টার দিকে বে-আইনীভাবে ভুক্তভোগীর দখলে থাকা জমিতে অনধিকার প্রবেশ করে জমিতে থাকা সাইবোর্ড ভাংগা শুরু করে। এসময় বাঁধা দেওয়ার চেষ্টা করলে তাদের হাতে থাকা ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে আক্রমন করে। এসময় তারা সকলকে হাতের অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এদের মধ্যে দুই জনের অবস্থার অবনতি হলে তাদেরকে সুপার ক্লিনিকে রেফার্ড করা হয়।

এব্যাপারে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক এসআই আল-মামুন কবির জানান, আমরা ঘটনাস্থল ও হাসপাতাল পরিদর্শন করেছি। বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।