আটোয়ারীতে ছাগল পাটক্ষেত খাওয়ায় সংঘর্ষ

আটোয়ারীতে ছাগল পাটক্ষেত খাওয়ায় সংঘর্ষ
আটোয়ারীতে ছাগল পাটক্ষেত খাওয়ায় সংঘর্ষ

মোঃ ইউসুফ আলী, আটোয়ারী, পঞ্চগড় প্রতিনিধি : পঞ্চগড়ের আটোয়ারীর পল্লীতে ছাগল পাটক্ষেত খাওয়াকে কেন্দ্র করে মারামারির ঘটনায় দুইজন গুরুতর আহত সহ চারজন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার তোড়িয়া ইউনিয়নের নিতুপাড়া গ্রামে।

প্রতিবেশীদের ভাষ্যমতে, বৃহস্পতিবার ১৩ মে সকাল প্রায় ৬টার দিকে নিতুপাড়া গ্রামের কফিল উদ্দীনের একটি ছাগল ওই গ্রামের মৃত তমিজ উদ্দীনের পুত্র বজলার রহমানের পাটক্ষেতে যায়। বারবার ছাগলটিকে তাড়ালেও আবার সেই ছাগলটি ফিরে আসে ওই পাটক্ষেতে। পাটক্ষেতের মালিক বজলার ছাগলটির অত্যাচারে গালাগালি শুরু করে।

গালাগালি শুনে ছাগলের মালিক প্রতিবেশী কফিল উদ্দীনের পুত্র খলিলুর রহমান ও আব্দুল কাদের বাড়ি থেকে বের হয় এবং উভয়ের মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। পরে বজলারের বড় ভাই খাদেমুল ইসলাম ঝগড়া নিস্পত্তির চেষ্টা করলে আব্দুল কাদের ও খলিলুর রহমান তাদের উপর আরো ক্ষিপ্ত হয়। এক পর্যায়ে ঝগড়া মারামারিতে রুপ নেয়।

মারামারির এক পর্যায়ে খলিলুর রহমান ও আব্দুল কাদেরের লাঠির আঘাতে মৃত তমিজ উদ্দীনের পুত্র বজলার রহমান(২৮) ও খাদেমুল ইসলাম(৩২) মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে রক্তাক্ত জখম হয়। এলাকার লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে আটোয়ারী হাসপাতালে ভর্তি করে।

তারা দু’জনে বর্তমানে আটোয়ারী হাসপাতালের পু:-০৯ ও পু:১০ নং বেডে চিকিৎসাধীন রয়েছে। পরবর্তীতে কুলকিনারা না পেয়ে কফিল উদ্দীনের পুত্র আব্দুল কাদের(২৬) ও কফিল উদ্দীনের স্ত্রী মোছাঃ বেগম(৫২) কে আটায়ারী হাসপাতালে পু:-১৫ ও ম: -০৩নং বেডে ভর্তি করানো হয়েছে। আহতদের পরিবারের লোকজন জানান, মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এব্যাপারে আটোয়ারী থানার অফিসার ইনচার্জ বলেন, বিষয়টি জেনেছি, এখন পর্যন্ত কোন লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।