ভারতে করোনা রুখতে মার্কিন সহায়তা অর্ধ বিলিয়ন পার

ভারতে করোনা রুখতে মার্কিন সহায়তা অর্ধ বিলিয়ন পার
ভারতে করোনা রুখতে মার্কিন সহায়তা অর্ধ বিলিয়ন পার

নিউজ ডেস্ক:   কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত ভারতকে সঙ্কট মোকাবেলায় ৫০০ মিলিয়ন বা অর্ধ বিলিয়ন ডলার সহায়তা প্রদান করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে ফোনালাপে মহামারী দূরীকরণে ভারতকে সার্বিকভাবে সহায়তার আশ্বাস দেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন।

আমেরিকা প্রদত্ত প্রায় ৫০০ মিলিয়ন বা অর্ধ বিলিয়ন ডলার সমমূল্যের সহযোগিতার মাঝে রয়েছে, মার্কিন প্রেসিডেণ্ট এর পূর্ব ঘোষিত ১০০ মিলিয়ন ডলার, ফাইজার কোম্পানীর পক্ষ থেকে ৭০ মিলিয়ন ডলার এবং ৪৫০,০০০ ডোজ রেমডেসিভির, প্রতি ডোজের মূল্য ৩৯০ মার্কিন ডলার। প্রতিদিনই অসংখ্য অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর, জীবন রক্ষাকারী ওষুধ এবং চিকিৎসা সরঞ্জামাদি আমেরিকা থেকে ভারতে পাঠানো হচ্ছে।

৩০ এপ্রিল অনুদান সহায়তার প্রথম চালান ভারতে পাঠানোর পর থেকে কয়েক দফায় গত ৮ মে অবধি উক্ত সহায়তা পাঠিয়েছে মার্কিন প্রশাসন।

আমেরিকান টেক জায়ান্ট গুগল, মাইক্রোসফট, বোয়িং এবং মাস্টারকার্ড সহ বেশ কয়েকটি বড় সংস্থা ভারত সরকারকে দশ মিলিয়ন ডলার বা ততোধিক সাহায্য পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছে। আমেরিকার গ্লোবাল টাস্ক ফোর্স করোনা ৪০ মিলিয়ন ডলার সমমূল্যের চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

‘ইউএস-ইন্ডিয়া স্ট্র্যাটেজিক এন্ড পার্টনারশিপ ফোরাম’ -এর প্রধান নির্বাহী মুকেশ অঘি বলেন, “আমরা আশা করছি ভারতে মার্কিন সাহায্য এ মাসের শেষ নাগাদ প্রায় ১ বিলিয়নে পৌছুবে। বর্তমান সঙ্কট মুহূর্তটা আমাদের প্রবাসীদের জন্য অত্যন্ত সংবেদনশীল। দেশে প্রায় সবারই কেউ না কেউ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।”

ইউএস-ইন্ডিয়া বিজনেস কাউন্সিলের সভাপতি নিশা দেশাই বিশ্বওয়াল বলেন, “গত দু সপ্তাহে আমেরিকান প্রশাসন ও সরকারের পাশাপাশি এখানে বসবাসরত ব্যবসায়ী সম্প্রদায়, ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রবাসী জনগণ, মার্কিন জনগণ সহ সকলেই ভারতীয় জনগণের পক্ষে স্বতঃস্ফূর্তভাবে এগিয়ে এসেছে। আমেরিকার সঙ্কট মুহূর্তে ভারত যেভাবে এগিয়ে এসেছিলো, মার্কিনীরা তা শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করে এবং কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে।

ভারতীয়দের সাহায্যে স্বীয় অবস্থান থেকে এগিয়ে আসছেন আমেরিকার সর্বস্তরের জনগণ ও শীর্ষ মহল। ভারতীয় বংশোদ্ভুত বিনোদ খোসলা সম্প্রতি এক কোটি মার্কিন ডলার প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। একই সময়ে, মার্কিন শীর্ষ কর্পোরেট নেয়া জন টি চেম্বারসও ভারতীয়দের সহায়তায় এক মিলিয়ন ডলার প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

ভারতে অনুদান পাঠানোর ক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই আমেরিকান আঞ্চলিক সেবাধর্মী সংগঠনগুলোও। আমেরিকান সংস্থা ‘সেবা ইন্টারন্যাশনা’ ইতোমধ্যে নিজেদের ইতিহাসে প্রায় ১৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার সংগ্রহ করেছে। আমেরিকান এসোসিয়েশন অব ফিজিশিয়ানস অব ইন্ডিয়ান অরিজিন’ ৩.৬ মিলিয়ন এবং জয় শেঠি ৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অনুদান সংগ্রহ করেছেন।

প্রসঙ্গত, গত রবিবার, ভারতের তামিলনাড়ু থেকে আমেরিকা যাওয়া প্রবাসীগণ মিলে প্রখ্যাত সমাজসেবী এমআর রঙ্গস্বামীকে সঙ্গে নিয়ে মাত্র কয়েক ঘন্টায় ১.৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অনুদান তোলার লক্ষ্যে ‘তামিলনাড়ুকে শ্বাস নিতে সাহায্য করো’ -ক্যাম্পেইন আয়োজন করেন।