শ্রীমঙ্গলে আটক ১২ লক্ষ টাকার ১২০ কেজি গাঁজা

শ্রীমঙ্গলে আটক ১২ লক্ষ টাকার ১২০ কেজি গাঁজা
শ্রীমঙ্গলে আটক ১২ লক্ষ টাকার ১২০ কেজি গাঁজা

মো. জহিরুল ইসলাম, মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি: সবার চোখ ফাকি দিতে পারলেও ফাকি দিতে পারেনি র‌্যাব সদস্যদের। এই সুন্দর কারুকার্য করা ৫টি ফার্নিচার একটি পিক আপ ভ্যানে করে হবিগঞ্জের চুনারুঘাট থেকে ঢাকা নিয়ে যাওয়ার পথে র‌্যাব-০৯ হাতে ধরা পড়ে গাঁজা ভর্তি ফার্নিচার ও পিকআপ ভ্যানটি।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ র‌্যাবের অভিযান দেখে গাড়ি থেকে পালিয়ে যায় মাদক ব্যবসায়ীরা। র‌্যাব সদস্যরা পিকআপ ভ্যান চেক করতেই ফার্নিচারের ভিতরে গাঁজার সন্ধান পায় গাঁজা। শ্রীমঙ্গলস্থ র‌্যাব -০৯ শ্রীমঙ্গল ক্যাম্পে নিয়ে আসলে সেখানে ফানিচারগুলো পিছনের অংশ ভাঙ্গার পর একের পর এক বের হতে থাকে গাঁজার প্যাকেট। ৫টি
কাঠের আলমারি থেকে ১২০ কেজি গাঁজা বের করেন র‌্যাব সদস্যরা।

র‌্যাব জানায়, র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে চালক ও গাজার মালিক পালিয়ে যায়। পরে ফার্নিচারের ভিতরে বিশেষ পন্থায় বক্স করে রাখা ১২০ প্যাকেট গাঁজা পাওয়া যায়। প্রতি প্যাকেটে গাঁজার পরিমান এক কেজি করে মোট ১২০ কেজি।যার আনুমানিক বাজার প্রায়ই মুল্য ১২ লক্ষ টাকা।

আটকৃতরা হলেন, হবিগঞ্জ জেলার শায়েস্তাগঞ্জ থানার হাবডার হাওর এর বাসিন্দা মৃত সিদ্দিক আলীর ছেলে মনা মিয়া (২৬) ও পিকআপ এর একই থানার শাহবাজপুর গ্রামের মৃত সোনাই মিয়ার ছেলে মিলন মিয়া (৩৮) এর বিরুদ্ধে মামলা করার প্রস্তুতি চলছে। উদ্ধারকৃত গাঁজা ও ফার্নিচার শ্রীমঙ্গল থানায় হস্তান্তর করা হবে ।