নাটোরের সিংড়ায় সড়ক সংস্কারে অনিয়মের অভিযোগ

নাটোরের সিংড়ায় সড়ক সংস্কারে অনিয়মের অভিযোগ
নাটোরের সিংড়ায় সড়ক সংস্কারে অনিয়মের অভিযোগ

আবু জাফর সিদ্দিকী, নাটোর প্রতিনিধি : নাটোরের সিংড়া উপজেলার জনগুরুত্বপূর্ণ চৌগ্রাম-কালিগঞ্জ পাকা সড়কের স্থাপনদীঘি-পাকিশা বাজার এলাকায় তিন কিলোমিটার সড়ক সংস্কার কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, রাস্তা সংস্কারে খোয়ার পরিবর্তে পুরোনো রাবিশ ও আবর্জনা মিশ্রিত নামমাত্র খোয়া ব্যবহার করা হচ্ছে। পুরোনো রাবিশ দিয়ে যত্রতত্রভাবে সড়ক সংস্কারের কাজ করা হচ্ছে।

সিংড়া উপজেলা এলজিইডি কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ২০২০-২১ অর্থ বছরে সিংড়া উপজেলার চৌগ্রাম-কালিগঞ্জ পাকা সড়কের স্থাপনদীঘি-পাকিশা বাজার পর্যন্ত ২ কোটি ২৭ লাখ ৮২ হাজার ১০ টাকা চুক্তি মূল্যে তিন কিলোমিটার পাকা সড়ক সংস্কার কাজ পান নাটোরের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স সরকার কনস্ট্রাকশন। এ কাজের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিক সুজিত কুমার সরকার।

চুক্তি অনুযায়ী সড়কে তিন ইঞ্চি খোয়া দেয়ার কথা থাকলেও সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পুরোনো রাবিশের উপর আবর্জনা মিশ্রিত নামমাত্র খোয়া দিয়ে কোনো রকম সংস্কার কাজ চলছে। সাংবাদিকদের ছবি তোলা দেখে তড়িঘরি করে আবর্জনা ঢেকে দিতে চেষ্টা করে ব্যর্থ হন কাজে নিয়োজিত হেড মিস্ত্রি আব্দুল কাদের। পরে সাফাইও গান নিজের পক্ষে।

স্থানীয় কৃষক হারেজ আলী বলেন, সিংড়ার এটি জনগুরুত্বপূর্ণ একমাত্র রাস্তা। এই রাস্তা দিয়ে চলনবিলের কৃষকের উৎপাদিত কৃষি পণ্য আনা-নেয়া ছাড়াও লক্ষাধিক লোকের চলাচল। কিন্তু বরাবরই পুরোনো রাবিশ দিয়ে যেনতেনভাবে রাস্তা সংস্কারের ফলে সাধারণ মানুষকে দূর্ভোগ পোহাতে হয়।

স্থানীয় ভ্যানচালক মো. শাহাদৎ হোসেন বলেন, নিম্নমানের পুরোনো খোয়া দিয়েই রাস্তা সংস্কারে ভ্যানগাড়ী চলাচলে সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। এত নিম্নমানের কাজ হচ্ছে যে, রাস্তা দুই দিনও টিকবো না। আর আমরাতো গরীব মানুষ, আমাদের কথা কে বা শুনে।

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিক সুজিত কুমার সরকার বলেন, নিয়ম অনুযায়ী কাজ করা হচ্ছে। উপজেলা প্রকৌশলী মো. হাসান আলী বলেন, অভিযোগের বিষয়গুলো তিনি সরেজমিনে গিয়ে তদন্ত করে দেখবেন।