ডাবল ব্যাটিং মুমিনুল-লিটনের

ডাবল ব্যাটিং মুমিনুল-লিটনের
ডাবল ব্যাটিং মুমিনুল-লিটনের

নিউজ ডেস্ক : আসন্ন টেস্ট সিরিজের জন্য যা প্রয়োজন, সেটাই করেছে টাইগার টিম ম্যানেজমেন্ট। মুমিনুল হক ও লিটন দাস দু’বার ব্যাটিং করে প্রস্তুতি সেরেছেন। মিরাজ-তাইজুলরা প্রথম দিন বোলারদের ওপর দিয়ে বুলডোজার চললেও রোববার ভালো করেছেন । অফস্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ ৩ উইকেট নিয়ে এগিয়ে ছিলেন। দাপটে মুমিনুলের নেতৃত্বাধীন সবুজ দল ২২৫ রানে গুটিয়ে যায়।

ওপেন করতে নেমে লিটন দাস ২৭ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। আবার পরে সাত নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৬৪ রান করে স্বেচ্ছা অবসরে যান। তিনি কম ওভারের ফরম্যাটে লিটন ওপেন করলেও টেস্টে সাধারণত ছয় বা সাতে ব্যাটিং করেন । হয়তো ওপেন করলেও পরে তার সম্ভাব্য পজিশনে ব্যাটিং করানো হয়। মুমিনুল শূন্য রানে আউট হয়ে গিয়েছিলেন বলে দ্বিতীয়বার ব্যাটিং অনুশীলনের সুযোগ করে দেওয়া হয় তাকে। ৪৭ রান করে টেস্টের প্রস্তুতি ভালোভাবেই সারেন অধিনায়ক।

এদিকে মিঠুন ২৮, সাদমান ১৯ রান করেন। ২০ রানে শরিফুল ইসলাম অপরাজিত ছিলেন । লাল দলের বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল মিরাজ ৪১ রানে ৩ উইকেট নেন। স্পিনার তাইজুল ৩০ রানে ১ উইকেট নেন। পেসার আবু জায়েদ রাহিও ভালো বোলিং করেছেন। তিনি একটি উইকেট নিয়ে টেস্ট একাদশে জায়গা ধরে রাখাটা প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেছেন।

প্রথম দিনে ব্যাটিং করে তামিম ইকবালের লাল দল চার হাফ সেঞ্চুরিতে ৩১৪ রান করেছিল। তাদের ইনিংসে আউট হয়েছিলেন মাত্র একজন, বাকি পাঁচজন স্বেচ্ছা অবসরে গিয়েছিলেন।

বাংলাদেশ দল শ্রীলঙ্কা যাওয়ার পর থেকে ঘাঁটি গেড়েছিল কলম্বোর অদূরে নেগেম্বোতে। রবিবার সকালে ক্যান্ডি যাবেন মুমিনুল-মুশফিকরা। দুই দিনের কাতুনায়েকেতে অনুষ্ঠিত এই প্রস্তুতি ম্যাচের ওপর ভিত্তি করে আজ ক্যান্ডিতে ২১ জনের প্রাথমিক দল ১৬ জনের স্কোয়াডে নামিয়ে আনা হবে। বাদ পড়া পাঁচজনও দলের সঙ্গেই থাকবেন বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন। প্রথম টেস্ট ২১ এপ্রিল থেকে পাল্লেকেলেতে শুরু হবে ।