ওয়াসিম সিনেমা ছাড়েন, স্ত্রীর মৃত্যু ও মেয়ের আত্মহত্যায় 

ওয়াসিম সিনেমা ছাড়েন, স্ত্রীর মৃত্যু ও মেয়ের আত্মহত্যায় 
ওয়াসিম সিনেমা ছাড়েন, স্ত্রীর মৃত্যু ও মেয়ের আত্মহত্যায় 

নিউজ ডেস্ক : সোনালী দিনের নায়ক ওয়াসিম মারা গেলেন। তার মৃত্যুর আগে সিনেমা ও অভিনয়ের সঙ্গে একেবারেই যেনো সম্পর্ক ছিলো না । ওয়াসিম ১৯৭৩ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত শীর্ষ নায়কদের একজন তারপরও অভিনয় একেবারেই ছেড়ে দিয়েছিলেন। কেনো ওয়াসিম অভিনয় ছেড়েছেন?

জানা গেছে, তিনি স্ত্রী কন্যার অকাল মৃত্যুতে ভেঙে পড়েন। যার কারণে অভিনয় থেকে গুটিয়ে নিয়েছিলেন নিজেকে। ২০০০ সালে ওয়াসিমের স্ত্রী মারা যান। আর সেই শোক কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই ২০০৬ সালে ওয়াসিমের কন্যা বুশরা আহমেদ চৌদ্দ বছর বয়সে স্কুলের পাঁচতলা থেকে লাফিয়ে পড়ে আত্মহত্যা করে।

নায়ক ওয়াসিম এই দুই মৃত্যু মেনে নিতে পারেননি। তার জীবন বিষাদময় হয়ে আসে। তিনি সব কিছু থেকে দূরে সরে যান। তিনি একাকী জীবন পার করতে থাকেন। আর মৃত্যুর আগ পর্যন্ত একা জীবনই ছিলো তার।

ওয়াসিমের এক ছেলেও রয়েছে, নাম ফারদিন। ফারদিন লন্ডনের কারডিফ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলএম পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে ব্যারিস্টার হিসেবে আইন পেশায় নিয়োজিত।

মেজবাহ উদ্দীন আহমেদ ওয়াসিমের পুরো নাম ছিল। ওয়াসিম ১৯৪৭ সালের ২৩ মার্চ জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ইতিহাস বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি কলেজের ছাত্রাবস্থায় বডি বিল্ডার হিসেবে নাম করেছিলেন। ওয়াসিম ১৯৬৪ সালে বডি বিল্ডিং এর জন্য মি. ইস্ট পাকিস্তান খেতাব অর্জন করেছিলেন।

ওয়াসিম ঢাকাই ছবির ৭০ থেকে ৮০ দশকের সুপারস্টার । এই সুপারস্টার শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টা নাগাদ না ফেরার দেশে পাড়ি জমান ।