চলে গেলেন আবদুল মতিন খসরু

মতিন খসরুর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক
মতিন খসরুর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক

নিউজ ডেস্ক:  সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সাবেক আইনমন্ত্রী আবদুল মতিন খসরু করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি…রাজিউন)। বুধবার বিকেল ৪টা ৫০ মিনিটে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

জানা গেছে, গত ১৫ মার্চ তিনি সংসদ সচিবালয়ে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। ১৬ মার্চ সকালে পাওয়া রিপোর্টে পজিটিভ এলে ওইদিনই সিএমএইচে ভর্তি হন। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ২৮ মার্চ তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। অবস্থার উন্নতি হলে ৩১ মার্চ কেভিনে নেওয়ার পরদিন ১ এপ্রিল তার করোনা পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ আসে। এর মধ্যে ফের তার অবস্থার অবনতি হলে আইসিইউতে ভর্তি হন। সবশেষ মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়। এরপর বুধবার বিকেলে সাবেক এ আইনমন্ত্রী মারা যান।

এদিকে, বৃহস্পতিবার হাইকোর্ট প্রাঙ্গণে মতিন খসরুর প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হবে বলে বুধবার (১৪ এপ্রিল) বিকেলে তার ব্যক্তিগত সহকারী অ্যাডভোকেট মহিন জানিয়েছেন।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার সকালে হাইকোর্টে আবদুল মতিন খসরুর প্রথম জানাজা হবে। এর পর তাকে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলায় নেওয়া হবে। বুড়িচং উপজেলার হাইস্কুল মাঠে দ্বিতীয় জানাজা শেষে নেওয়া হবে তার নিজ গ্রাম মিরপুরে। সেখানে তৃতীয় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে। প্রাথমিকভাবে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

উচ্চ আদালতের এ জ্যেষ্ঠ আইনজীবী কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের মিরপুর গ্রামে ১৯৫০ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন। তিনি এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক।

১৯৯১ সালে নৌকা প্রতীক নিয়ে কুমিল্লা থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তারপর ১৯৯৬, ২০০৮, ২০১৪ ও ২০১৯ সালে মোট ৫ বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এর মধ্যে সপ্তম সংসদে (১৯৯৬-২০০১) আইনমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

বর্তমান সংসদে আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি পদে রয়েছেন।