ন্যায্য মূল্যের দাবিতে বীজ আলু চাষীদের সংবাদ সম্মেলন

ন্যায্য মূল্যের দাবিতে বীজ আলু চাষীদের সংবাদ সম্মেলন
ন্যায্য মূল্যের দাবিতে বীজ আলু চাষীদের সংবাদ সম্মেলন

শেরপুর প্রতিনিধি:   শেরপুরে উৎপাদিত বীজ আলুর ন্যায্য মূল্যের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন বিএডিসির চুক্তিবদ্ধ বীজ আলু চাষীরা। রোববার (১১ এপ্রিল) সকালে শহরের মাধবপুরস্থ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ওই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এতে শেরপুর সদর উপজেলায় বিএডিসির চুক্তিভিত্তিক কৃষকদের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আলু চাষী সমিতির সভাপতি উসমান গণি।

তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, এ বছর সদর উপজেলায় ৪৬০ একর জমিতে বীজ আলু উৎপাদন করা হয়েছে। বিগত বছরেরবীজ আলু উৎপাদন খরচের তুলনায় এ বছর খরচ বেশি হলেও এবার প্রতি কেজি বীজ আলুর সরকারি মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ‘এ’ গ্রেড ১৯ টাকা এবং ‘বি’ গ্রেড ১৬ টাকা। অথচ গত বছর যা ছিল ‘এ’ গ্রেড ২৩ টাকা এবং ‘বি’ গ্রেড ২২ টাকা।এতে করে কৃষকরা ক্ষতির মুখে পড়ছেন এবং তারা হতাশ হয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, বিগত দিনে বিএডিসি কৃষকদের উৎপাদন খরচের চেয়ে আলু বীজের মূল্য ৩০ শতাংশ বেশি দিয়েছিল। সেই হিসেবে এ বছর প্রতি কেজি আলু বীজের মূল্য হয় ‘এ’ গ্রেড ২৭ টাকা এবং ‘বি’ গ্রেড ২৫ টাকা। তাই ২০২০-২০২১ অর্থ বছরের প্রতি কেজি বীজ আলুর মূল্য ২৫ থেকে ২৭ টাকা করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জোর দাবি জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে আলু চাষী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবীর, আলু বীজ চাষী আতাউর রহমান হেলাল, জুলহাস উদ্দিন বাদশা, মিলন মিয়া, মিজানুর রহমানসহ জেলায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।