থানায় ছেলের জিডি, ঝর্ণা নিখোঁজ

থানায় ছেলের জিডি, ঝর্ণা নিখোঁজ
থানায় ছেলের জিডি, ঝর্ণা নিখোঁজ

নিউজ ডেস্ক : মামুনুল হক হেফাজত ইসলামের নেতার দাবিকৃত দ্বিতীয় স্ত্রী জান্নাত আরা ঝর্ণা নিখোঁজ রয়েছেন। ঝর্নার বড় ছেলে তার সন্ধান এবং জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সাধারণ ডায়েরি করেছেন। তার ছেলে গতকাল শনিবার ১০ এপ্রিল পল্টন থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

সাধারণ ডায়েরিতে বলেন, আমার মা জান্নাত আরা ঝর্ণার সাথে আমি যোগাযোগ করতে না পেরে ধানমন্ডির নর্থ সার্কুলার রোডের বাসায় যাই। সেখানকার বাড়ির মালিক আমাকে জানায় ৯ এপ্রিল তিনি বাসা থেকে বের হয়ে গেছেন, আর আসেননি। তারপর আমি আমার মায়ের কক্ষে প্রবেশ করি এবং দেখতে পাই আমার মায়ের ব্যক্তিগত তিনটি ডায়েরি।

তারমধ্যে একটি সাদা রঙের ক্লিপ দিয়ে স্পাইরেল করা নীল ও ধূসর রঙের। আরেকটি একটি ডায়েরি আরবি লেখা এবং নিচের দিকে জামিয়াতুল ইসলামিয়া দারুল উলুম পলাশ নরসিংদী লেখা। সেটিতে কভারপেইজ ছাড়া ১ থেকে ৮৭ পৃষ্ঠা রয়েছে। অন্য রঙের আরেকটি ডায়েরি আমার হস্তগত হয়। সেখানে অদ্য শনিবার ১০ এপ্রিল আনুমানিক সন্ধ্যা ছয়টার দিকে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিলে পল্টন মোড়ে পৌঁছালে অজ্ঞাত কয়েকজন আমাকে অনুসরণ করে।

তখন আমার মনে হয় আমার জীবন এবং আমার মা জান্নাত আরা ঝরনার জীবন এবং ডায়েরিগুলো সংরক্ষণের বিষয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছি। এই অবস্থায় আমার জীবন আমার মায়ের জীবন নিরাপত্তা বিধানের জন্য সাধারণ ডায়েরি করলাম।

তরুণ আবদুর রহমান মামুনুল হকের বিরুদ্ধে ফেসবুক লাইভরে বক্তব্যে আলোচিত হন । আবদুর রহমান ঝর্ণা ও হাফেজ শহীদুল ইসলাম দম্পতির বড় ছেলে। ঢাকার নর্থ সার্কুলার রোডে একটি বাসায় মাসে ছয় হাজার টাকা চুক্তিতে সাবলেট থাকতেন ঝর্ণা। আর ওই ফ্ল্যাটের প্রকৃত ভাড়াটিয়া তার ছেলেকে জানান, ঝর্ণা গত ৩ এপ্রিল বাসা থেকে বের হয়ে আর ফেরেননি।