মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক অধ্যাপক দেবব্রত দত্ত আর নেই

মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক অধ্যাপক দেবব্রত দত্ত আর নেই
মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক অধ্যাপক দেবব্রত দত্ত আর নেই

নিউজ ডেস্ক:   মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক এবং মুজিবনগর সরকারের পূর্বাঞ্চলের ইয়থ ট্রেনিং কন্ট্রোল বোর্ডের পরিচালক ও প্রশিক্ষণ সমন্বয়কারী অধ্যাপক দেবব্রত দত্ত গুপ্ত আর নেই।

বার্ধক্যজনিত রোগে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান। তিনি একমাত্র ছেলে ডা. জয়দীপ দত্ত গুপ্ত, পুত্রবধূ ডা. শিল্পী দত্ত গুপ্তা, নাতিসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। শুক্রবার বিকালে নগরীর বাগিচাগাঁও এলাকায় ছেলের বাসভবনের সামনে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা শেষে ঠাকুরপাড়া শ্মশানে তাকে সমাহিত করা হয়।

অধ্যাপক দেবব্রত দত্ত গুপ্ত ১৯৪০ সালের ১২ জুন তৎকালীন কুমিল্লার বর্তমানে চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলা সাহিত্যে সর্বোচ্চ ডিগ্রি লাভ করেন। এরপর নোয়াখালী চৌমুহনী কলেজে দীর্ঘ বছর অধ্যাপনা করেন। তিনি মজিবনগর সরকারের ৩০টি যুব প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের পরিচালক সমন্বয়কারী ও প্রশিক্ষক ছিলেন। ১৯৭১ সালের ৯ ডিসেম্বর তিনি ভারতের প্রশিক্ষণ কেন্দ্র থেকে দেশে ফিরেন। পরে মুজিবনগর সরকারের নির্দেশে তিনি অধ্যাপনার চাকরি ছেড়ে যুদ্ধোত্তর গ্রামোন্নয়নের উদ্দেশ্যে ১৯৭১ সালের ২৭ ডিসেম্বর বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমিতে (বার্ড) যোগদান করেন।

অধ্যাপক দেবব্রত দত্ত গুপ্তের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, সাবেক রেলপথমন্ত্রী মুজিবুল হক এমপি, আ ক ম বাহাউদ্দিন এমপি, আঞ্জুম সুলতানা সীমা এমপিসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ।