বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম হিজড়া সংবাদ উপস্থাপক তাসনুভা আনান শিশির

আগামী ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবসে একটি বেসরকারি টেলিভিশনে সংবাদ পাঠ করবেন প্রথম হিজড়া উপস্থাপক শিশির। স্বাধীনতার ৫০ বছরে দেশে এই প্রথম টেলিভিশনে সংবাদ উপস্থাপক হয়েছেন এক ট্রান্সজেন্ডার (হিজড়া) নারী। তার পুরো নাম নাম তাসনুভা আনান শিশির।

এছাড়া একইদিনে একটি নাটকের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে আরেক হিজড়া নারীকে। তার নাম নুসরাত মৌ।

শুক্রবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বেসরকারি টেলিভিশন বৈশাখী ঘোষণাটি প্রচার করে।

বৈশাখী টিভির ওই বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি যে বৈশাখী টেলিভিশন স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর এই বছর, স্বাধীনতার মাস মার্চে নারী দিবস উদযাপনের আগে সংবাদ বিভাগ ও নাটকে দুইজন ট্রান্সজেন্ডার নারীকে যুক্ত করেছে। দেশের মানুষ এই প্রথম একজন ট্রান্সজেন্ডারকে পেশাদার সংবাদ বুলেটিনে পাঠ করতে দেখবেন। এই ট্রান্সজেন্ডার নারীর নাম তাসনুভা আনান শিশির। আসছে ৮ মার্চ (সোমবার) আন্তর্জাতিক নারী দিবসে শিশির বৈশাখী টেলিভিশনে তার প্রথম সংবাদ বুলেটিন উপস্থাপন করবেন।

আরও জানানো হয়, টেলিভিশনটির বিনোদন বিভাগের নিয়মিত নাটকের মূল চরিত্রগুলোর একটিতে যুক্ত করা হয়েছে আরেকজন ট্রান্সজেন্ডার নারীকে। যার নাম নুসরাত মৌ। যাকে পর্দায় প্রথম দেখা যাবে আন্তর্জাতিক নারী দিবসে। ধারাবাহিক নাটক ‘চাপাবাজ’-এর একটি পর্বে মৌকে দেখা যাবে। ৮ মার্চ রাত ৯টা ২০ মিনিটে নাটকটি প্রচার করা হবে।

তাসনুভা আনান শিশির গণমাধ্যমকে জানান, ওই চ্যানেলে তিনি নাটকের কাজে গিয়েছিলেন। সেখানে তার উচ্চারণ উপস্থাপন দেখে টেলিভিশন কর্তৃপক্ষ তাকে অডিশন দিতে বলে। পরে অডিশনের পর তারা সংবাদ পাঠক হিসেবে নির্বাচিত করেন।