ক্যাশে লেনদেন কমাতে পারলে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করা সম্ভব: পলক

দেশেই সাইবার সিকিউরিটি এক্সপার্ট তৈরি করা হবে: প্রতিমন্ত্রী পলক

নিউজ ডেস্ক:   তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমে্দ পলক সরকার ক্যাশলেস সোসাইটি তৈরিতে কাজ করছে উল্লেখ করে বলেছেন, ক্যাশে লেনদেন কমাতে পারলে দুর্নীতি, অনিয়ম কমিয়ে আনাসহ আর্থিক খাতের স্বচ্ছতা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।

প্রতিমন্ত্রী ঢাকার স্থানীয় এক হোটেলে সোনালী ব্যাংকের হিসাব এবং বিকাশ একাউন্টের মধ্যে লিংক স্থাপনের মাধ্যমে লেনদেন কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ব্যাংকসহ বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ইন্টার অপারেটর ট্রানজেকশন প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা হচ্ছে। এর মাধ্যমে গ্রাহকদের কস্ট, ভিজিট এবং সময় সাশ্রয় হবে।

পলক বলেন, ডিজিটাল আর্থিক লেনদেনের সেবাগুলো সাধারণ মানুষকে করোনাকালীন সময়ের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আরো বেশি সক্ষমতা দিয়েছে। একই সঙ্গে এই সেবার গুরুত্ব এবং উপযোগিতাকে আরো স্পষ্ট করে বুঝিয়ে দিয়েছে। বৃহত্তম দুটি সরকারি-বেসরকারি আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের এমন যৌথ উদ্যোগ নিঃসন্দেহে আর্থিক অর্ন্তভুক্তি সহ সব ধরনের ডিজিটাল আর্থিক সেবা নিশ্চিত করার পথকে আরো সুগম করলো বলে তিনি জানান।

পলক আরো বলেন, সারাদেশের সোনালী ব্যাংকের সব গ্রাহকের লেনদেন এবার হবে বিকাশে। কেননা, এখন থেকে বিকাশ গ্রাহক ব্যাংক একাউন্ট থেকে ‘ট্রান্সফার মানি’ ও ‘অ্যাড মানি’ করতে পারবেন বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমে।

প্রতিমন্ত্রী ডিজিটাল লেনদেনে আর্থিক প্রণোদনা দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান।

সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিষয়ক সিনিয়র সচিব আসাদুল ইসলাম, সোনালী ব্যাংক চেয়ারম্যান জিয়াউল হাসান সিদ্দিকী এবং বিকাশের প্রতিষ্ঠাতা সিইও কামাল কাদির।