২০৪০ সালের মধ্যে দেশকে তামাকমুক্ত করার ঘোষণা

প্রথানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়নে তামাকমুক্ত দেশ গড়ার কাজ করবেন মোঃ সাদেক খান এমপি
প্রথানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়নে তামাকমুক্ত দেশ গড়ার কাজ করবেন মোঃ সাদেক খান এমপি

নিউজ ডেস্ক:  ঢাকা-১৩ আসনের সংসদ সদস্য, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কীত স্থায়ী কমিটির সদস্য এবং ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তরের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মোঃ সাদেক খান বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ২০৪০ সালের মধ্যে দেশকে তামাকমুক্ত করার ঘোষণার প্রতি আমার শতভাগ সমর্থন রয়েছে। তিনি এ সংক্রান্ত সকল কাজে নিজে সম্পৃক্ত থাকবেন বলেও জানিয়েছেন।

২৩ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর রায়েরবাজারে নিজ কার্যালয়ে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের এক প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে মোঃ সাদেক খান, এমপি এ কথা বলেন।

ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের সমন্বয়ক মোঃ শরিফুল ইসলামের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলে ছিলেন মিডিয়া ম্যানেজার রেজাউর রহমান রিজভী ও প্রকল্প কর্মকর্তা অদুত রহমান ইমন। প্রতিনিধি দল মোঃ সাদেক খান, এমপিকে তামাক নিয়ন্ত্রণে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের বিভিন্ন কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত করেন।

এসময় ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের সমন্বয়ক মোঃ শরিফুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশ সরকার ফ্রেমওয়ার্ক কনভেনশন অন টোব্যাকো কন্ট্রোল (এফসিটিসি)-র আলোকে ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন, ২০০৫ প্রণয়ন করে। ২০১৩ সালে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ সংশোধনী আনা হয় এবং এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৫ সালে ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) বিধিমালা প্রণয়ন করা হয়।

তবে বিদ্যমান তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনটি এফসিটিসির সাথে অনেকাংশে সামঞ্জস্যপূর্ণ হলেও কিছু জায়গায় দুর্বলতা রয়েছে। আর তাই আইনের দুর্বলতার সুযোগ নিচ্ছে তামাক কোম্পানীগুলো। এজন্য আইনের প্রয়োজনীয় সংশোধন প্রয়োজন। এ সম্পর্কীত প্রয়োজনীয় আইন সংশোধনে মোঃ সাদেক খান, এমপির সমর্থন চান প্রতিনিধি দল। মোঃ সাদেক খান, এমপি প্রতিনিধি দলকে তাদের কার্যক্রমের জন্য সাধুবাদ জানান ও প্রয়োজনীয় সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

ঢাকািনউজ২৪.কম