নীল-তৃণার বিয়ে

বিয়ের আসরে নীল তৃণা
বিয়ের আসরে নীল তৃণা

নিউজ ডেস্ক: সদ্য সদ্য সাতপাকে বাঁধা পড়েছেন। ৪ ফেব্রুয়ারি কলকাতার একটি অভিজাত ক্লাবে বসে নীল ভট্টাচার্য এবং তৃণা সাহার বিয়ের আসর। নীল-তৃণার বিয়ে নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই টলি পাড়ায় জোর শোরগোল শুরু হয়। আইবুড়োভাত থেকে মেহেন্দি কিংবা গায়ে হলুদ, বিয়ের আগে থেকে একের পর এক ছবি শেয়ার করে দর্শকদের চমকে দিতে শুরু করেন নীল-তৃণা। হালকা পেস্তা রঙের লেহঙা পরে মেহেন্দির অনুষ্ঠানে হাজির হন তৃণা সাহা। মেহেন্দির পর হলুদ রঙের লেহঙা পরে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে দেখা যায় ‘খড়কুটোর’ গুনগুনকে। বিয়ের আগের অনুষ্ঠান শুরুর পর থেকে নীল এবং তৃণার বিভিন্ন ছবি নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে গুঞ্জন শুরু হয়ে যায়।

২০১১ সালে নীলের সঙ্গে তৃণার প্রথম দেখা। ওই সালে নীল, তৃণার বন্ধুত্বের সূত্রপাত হলেও, বিশেষ কোনও সম্পর্ক গড়ে ওঠেনি তাঁদের মধ্যে। তৃণার সঙ্গে নীলের সেই বন্ধুত্ব বিশেষ মোড় নেয় ২০১৬ সালে। বন্ধুত্বের পর বিশেষ অনুভূতির কথা জানানোয় তৃণার কাছে বেশ খানিকটা পিছিয়ে ছিলেন নীল। ওই সময় তৃণাই প্রথম নীলকে নিজের মনের কথা জানান। বান্ধবীর মনের কথা জানার পর, সে বিষয়ে সম্মতি জানাতে অবশ্য ভোলেননি টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেতা। টানা ৫, ৬ বছরের সম্পর্কের পর অবশেষ বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন এই জনপ্রিয় জুটি।

৪ ফেব্রুয়ারি লাল রঙের বেনারসির সঙ্গে ভারী গয়নায় সেজে মণ্ডপে হাজির হন তৃণা। অন্যদিকে নীলকেও দেখা যায় ডিজাইনার পাঞ্জাবি পরে মণ্ডপে হাজির হতে। বিয়ের মণ্ডপে প্রবেশের আগে হুড খোলা গাড়ি থেকে নেমে বরয়াত্রীদের সঙ্গে নাচতেও দেখা যায় নীল ভট্টাচার্যকে। নীলের সেই ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আসতেই তা ভাইরাল হয়ে যায় সামাজিক মাধ্যমে।

সূত্র.জিনিউজ

ঢাকানিউজ২৪ডটকম