এফবিসিসিআই ও এমআইটি সলভ-এর উদ্যোগে ভার্চুয়াল সলভেথন শুরু

নিউজ ডেস্ক: বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জসমূহ মোকাবেলার জন্য কার্যকরি উপায় বের করে আনার লক্ষ্যে দ্য ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই)-এর উদ্যোগে, ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলোজি (এমআইটি) সলভ-এর সহযোগিতায় এবং এফবিসিসিআই টেক সি-এর পরিচালনায় আগামী ৩০ জানুয়ারি একটি ভার্চুয়াল সলভেথন আয়োজন করা হয়েছে। ‘এফবিসিসিআই ভার্চুয়াল সলভেথন পাওয়ার্ড বাই এমআইটি সলভ’ শীর্ষক কার্যক্রমটি বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

রিজিলেন্ট ইকোসিস্টেম, হেলথ সিকিউরিটি অ্যান্ড প্যানডেমিকস, ইক্যুইটেবল ক্লাসরুমস অ্যান্ড লার্নিং স্পেসেস, ডিজিটাল ইনক্ল্যুশন ফর ইকোনোমিক জাস্টিস- এই চারটি এমআইটি ২০২১ চ্যালেঞ্জ থিমের উপর ভিত্তি করে সলভেথন ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত হবে। এই কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করতে চাইলে আগ্রহী প্রার্থী ও তার দলকে এই চ্যালেঞ্জগুলো দক্ষতার সাথে মোকাবেলা করতে সক্ষম হওয়ার উপায় সংক্রান্ত আইডিয়া জমা দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। কার্যক্রমটির সার্বিক পরিচালনার দায়িত্বে থাকবেন এমআইটি সলভ কর্মকর্তা ও প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ফ্যাসিলিটেটর।

কার্যক্রমটি প্রসঙ্গে এফবিসিসিআই সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম বলেন, “দেশের মেধাবী তরুণদের খুঁজে বের করার লক্ষ্যেই এই আয়োজন। আমার দৃঢ় বিশ্বাস, ‘এফবিসিসিআই ভার্চুয়াল সলভেথন পাওয়ার্ড বাই এম আইটি সলভ’-এর মাধ্যমে বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সক্ষম এমন সম্ভাবনাময় তরুণদের দেখা পাবো, যারা পরবর্তীতে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের সক্ষমতাকে তুলে ধরবে।”

এফবিসিসিআই টেক সি উপদেষ্টা সোনিয়া কবীর বশির বলেন, “পূর্বে আমাদের দেশের সম্ভাবনাময় তরুণদের এমআইটি সলভ এর মতো আয়োজনে অংশগ্রহণ ছিলো অত্যন্ত ব্যয় ও সময় সাপেক্ষ। দীর্ঘদিন ধরে এফবিসিসিআই আয়োজিত ভার্চুয়াল সলভেথনের মতো সময়োপযোগী উদ্যোগ গ্রহণের কথা থাকলেও তা হয়ে উঠেনি। আশা করছি, এমআইটি সলভ-এর মতো শক্তিশালী প্ল্যাটফর্মের সহযোগিতায় গৃহীত আন্তর্জাতিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সক্ষম দেশের মেধাবী তরুণদের খুঁজে বের করার এই উদ্যোগ সাফল্যের মুখ দেখবে এবং ভবিষ্যতেও আমরা এ ধরনের উদ্যোগ গ্রহণের ধারা অব্যাহত রাখব।”

পারস্পরিক আলোচনার ভিত্তিতে বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় কার্যকরি উপায় বের করার লক্ষ্যে সলভেথনের কর্মশালাগুলো সাজানো হয়। নিজস্ব প্রচেষ্টা ও দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে কার্যকরভাবে বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার সক্ষমতা প্রদর্শনের অনন্য এক সুযোগ তৈরি করে দিচ্ছে এই কার্যক্রমটি। এই প্ল্যাটফর্মটিতে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের মানুষকে জানা, আলোচনা, আইডিয়া শেয়ার করার সুযোগ দিয়ে থাকে।

সীমিত ধারণক্ষমতার কারণে আগ্রহী প্রার্থীদের দ্রুত রেজিস্ট্রেশন করার আহ্বান জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এফবিসিসিআই ভার্চুয়াল সলভেথন পাওয়ার্ড বাই এম আইটি সলভ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ও এতে অংশগ্রহণের জন্য রেজিস্ট্রেশন করতে ভিজিট করুন-

https://www.eventbrite.com/e/fbcci-virtual-solveathon-powered-by-mit-solve-registration-126406389915

এফবিসিসিআই সম্পর্কে

১৯৭৩ সালে প্রতিষ্ঠিত দ্য ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই) দেশের ব্যাবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই সংগঠনটি বাংলাদেশের বিভিন্ন ব্যবসায়ী সংগঠন ও চেম্বারসমূহকে একত্রিত করে সামগ্রিক ব্যবসায়িক উন্নয়নের লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। এফবিসিসিআই-এর বিশেষ উদ্যোগ এফবিসিসিআই ইমপ্যাক্ট ৪.০-এর আওতায় এফবিসিসিআই এডিআর সেন্টার, টেক সেন্টার, স্কিল ল্যাব, এফবিসিসিআই ইনস্টিটিউট, এফবিসিসিআই ইউনিভার্সিটি, ইকোনমিক অ্যান্ড অ্যাপ্লায়েড রিসার্চ সেন্টার, মাল্টিপারপাস ওয়ার্কশপ/সেমিনার/স্কিলস অডিটোরিয়াম ও বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর সাথে তাল মিলিয়ে ফেডারেশনের সক্ষমতা বৃদ্ধি এবং এলডিসি ও এসডিজি ২০৩০ বাস্তবায়নে রোডম্যাপ প্রণয়নের কাজ চলছে।

এমআইটি সলভ সম্পর্কে

এমআইটি সলভ ম্যাসেচুসেটস ইন্সটিটিউট অব টেকনোলোজি (এমআইটি)-এর একটি যুগান্তকারী উদ্যোগ, যা বর্তমান বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ সমস্যাগুলোর দীর্ঘমেয়াদী সমাধান প্রদানে সক্ষম। সলভ স্টেকহোল্ডার বিশেষজ্ঞদের দ্বারা প্রতি বছর চারটি বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জের নকশা তৈরি করে। যার মাধ্যমে তারা, রূপান্তরমূলক পরিবর্তন চালাতে সবচেয়ে সম্ভাবনাময় সমাধান প্রদানকারি দলটি বেছে নিতে পারবে। এরপর ব্যক্তিগত, সরকারি এবং মুনাফাবিহীন নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে বৈশ্বিক কমিউনিটি গঠন করে এবং এই কমিউনিটি সমাধান প্রদানকারি দলগুলোর সাথে অংশীদারিত্ব গঠনে সাহায্য করে। আর এই অংশীদারিত্বের ফলে দলগুলো তাদের প্রভাব বিস্তারে সক্ষম হয়।

সূত্র.প্রেস বিজ্ঞপ্তির।