আমেরিকার প্রথম নারী ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ কমলার

শপথ নিচ্ছেন কমলা দেবী হ্যারিস

সুমন দত্ত: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম নারী হিসেবে ভাইস প্রেসিডেন্টের শপথ নিলেন কমলা দেবী হ্যারিস। যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্টের ভাইস প্রেসিডেন্ট এখন তিনি। আগামী কয়েক বছর বাইডেন-কমলার অধীনেই চলবে মার্কিন প্রশাসন।

কমলা হ্যারিসের জন্ম ভারতীয় ও জ্যামাইকা অভিবাসীর মিলনে। কমলা বাবা-মা দুজনই আমেরিকা গিয়েছিল পড়াশোনার উদ্দেশ্যে। সেখানে তাদের বন্ধুত্ব হলে তা বিয়েতে গড়ায়। কমলা ও মায়ার জন্ম হয়। বিচ্ছেদও হয় কমলা বাবা মায়ের। এরপর ছোট কমলা ও তার বোন মায়াকে নিয়ে শুরু হয় কমলার মায়ের জীবন সংগ্রাম। বলতে গেলে কমলার মায়ের কারণেই আজ এই পর্যন্ত যোগ্যতা অর্জন করেছে কমলা হ্যারিস।

কমলা হ্যারিসের কিছু কাল কেটেছে কানাডায়। জীবিকার উদ্দেশ্যে কমলার মা কানাডায় পাড়ি দিয়েছিলেন। সেখানকার স্কুলে ৪-৫ বছর পড়া লেখা করেছেন সেখানে।

তারপর আবার আমেরিকায় ফিরেন। সেখানে নতুন করে শুরু করেন জীবন সংগ্রাম। কমলার মায়ের বাবা ছিলেন একজন ভারতীয় আইপিএস অফিসার। নাতনীদের সঙ্গে তিনিও সময় কাটিয়েছিলেন কিছু কাল।

নির্বাচনে কমলা হ্যারিস জো বাইডেনের কট্টর সমালোচক ছিলেন। তাকে জো বাইডেন রানিং মেট করবে সেটা ছিল সবার ধারণার বাইরে। তবে অনুমান করা হয় জো বাইডেন তার শারীরিক বিষয়টি বিবেচনা করে কমলা হ্যারিসকে নির্বাচিত করেছেন। কারণ কমলা ক্যালিফোর্নিয়ার সিনেটর ছিলেন, তার আগে ক্যালিফোর্নিয়ার প্রধান আইন কর্মকর্তা ছিলেন। এসব বড় পদগুলো দায়িত্ব পালনে তাকে যোগ্য মনে হয়েছে বাইডেনের।

তাছাড়া অনেক সমালোচক বলেন, জো বাইডেনের প্রয়াত ছেলে বো বাইডেনের সঙ্গে বন্ধুত্ব থাকার কারণে কমলাকে বাইডেন নির্বাচিত করেছে। তবে দীর্ঘদিন বাইডেনের সঙ্গে কমলার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ছিল।

বলা হয়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ বিষয়গুলো দেখভালের জন্য কমলা হ্যারিসকে নেয়া হয়েছে। অন্যদিকে বিশ্বের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নে জো বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রের পলিসি নির্ধারণ করবেন। সূত্র. ফক্স নিউজ,রয়টার্স, বিবিসি, স্কাই,এনডিটিভি।

ঢাকানিউজ২৪ডটকম