অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের পণ্যে বৈচিত্র্য আনতে হবে: শিল্পমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক:   শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেছেন, অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের পণ্যে বৈচিত্র্য আনতে হবে। ই-কমার্সের এই যুগে শিল্পখাতে বিপ্লব আনতে অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের পাশাপাশি পণ্যে বৈচিত্র্য এনে তা ডিজিটাল প্লাটফর্মে অংশগ্রহণের মাধ্যমে গ্রাহকের কাছে পৌছে দিতে হবে। করোনা মহামারির সময় বড় শিল্প কারখানা বন্ধ থাকলেও অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি এবং প্রান্তিক উদ্যোক্তাদের উদ্যোগ থেমে থাকেনি বলেই দেশের অর্থনীতি এখনও সচল রয়েছে।

বাংলাদেশ এসএমই ফোরামের আয়োজনে হাজার উদ্যোক্তার ডিজিটাল প্লাটফর্ম ‘এসএমই শপ বাংলাদেশ’ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি এবং প্রান্তিক উদ্যোক্তারা করোনাকালীন প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজ যাতে নির্বিঘ্নে পেতে পারে, সে ব্যবস্থা সরকার পর্যায়ক্রমে করেছে। কোভিড-১৯ এর মাঝেও ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের নিজেদের প্রচেষ্টায় এবং সরকারের গৃহীত পদক্ষেপে অর্থনীতিতে প্রাণ সঞ্চার হয়েছে। জেলা, উপজেলা থেকে গ্রাম পর্যায় পর্যন্ত অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

মন্ত্রী ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প উদ্যোক্তাদের ই-কমার্স মার্কেট প্লেস ‘এসএমই শপ বাংলাদেশ’ (smeshop.com.bd) এর উদ্বোধন শেষে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ এসএমই ফোরামের এসএমই পণ্য মেলার বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন।

বাংলাদেশ এসএমই ফোরামের সভাপতি সরদার শামস্ আল মামুন এর সভাপতিত্বে মতিঝিলের বিসিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে আজ এ অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিসিক চেয়ারম্যান মোশতাক হাসান এবং ইকোনমিক রিপোর্টস ফোরামের সাধারণ সম্পাদক এসএম রাশিদুল ইসলাম।