ট্রাম্পকে নজিরবিহীন দ্বিতীয়বারের জন্য অভিশংসন করা হয়েছে

নিউজ ডেস্ক: ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রথম মার্কিন রাষ্ট্রপতি যিনি দ্বিতীয়বারের মতো অভিশংসিত হওয়ার কলঙ্ক নিয়ে তার মেয়াদ শেষ করছেন।

কংগ্রেসের একটি যৌথ অধিবেশনে রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত জো বাইডেনের বিজয় স্বীকৃত দেওয়ার সময় ট্রাম্প সমর্থকরা গত সপ্তাহে ক্যাপিটল ভবনে হামলা করেছিলেন।

দাঙ্গা প্ররোচিত করার অভিযোগে বুধবার হাউস অব রিপ্রেজেনটেটিভ সদস্যরা ভোটে অভিশংসনের পক্ষে ভোট দিয়েছেন। তাঁর নিজের দল রিপাবলিকান পার্টির কিছু সদস্যরাও অংশ গ্রহণ করেছিলেন।

আগামী ২০ শে জানুয়ারির আগে সিনেটে তার বিচার হবার সম্ভাবনা নেই। তবে ডেমোক্রেট প্রার্থী জো বাইডেন রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নেয়ার পর তার বিচার শুরু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

পাশাপাশি পরবর্তী টার্মে তাকে সিনেটে বিচারের মুখোমুখি হতে হবে এবং ২০২৪ সালের নির্বাচনে অংশ নিতে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হতে পারে।

ডেমোক্র্যাটিক সিনেটর চাক শুমার বলেছিলেন, মার্কিন ইতিহাসে প্রথম রাষ্ট্রপতি হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্প যথাযথভাবে দ্বিতীয়বারের জন্য অভিযুক্ত হওয়ার কলঙ্ক বহন করছেন। সুতরাং সিনেটেও তাঁর বিচার হওয়া দরকার।

বিবিসি জানিয়েছে, ডেমোক্র্যাটিক পার্টি আনা এই প্রস্তাবটিতে ট্রাম্পের দলের রিপাবলিকান পার্টিরও সমর্থন রয়েছে। প্রাক্তন ভাইস প্রেসিডেন্ট ডিক চেনির কন্যা লিজ চেনিসহ দশ রিপাবলিকান নেতা ডেমোক্র্যাটদের পক্ষে ভোট দিয়েছেন।

সিএনএন জানায়, ৪৩৫ সদস্যের প্রতিনিধি পরিষদ ২৩২-১৯৭ ভোট দিয়ে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এই প্রস্তাবটি পাস করা হয়।

ট্রাম্পের সমালোচিত রিপাবলিকান অ্যাডাম কিনজিংগার বলেন, “আমার মন আজ খুব শান্ত।” কারণ আমি আমার ভোট সঠিক জায়গায় দিতে সক্ষম হয়েছি। আমি মনে করি ইতিহাস ঠিক সেভাবে মূল্যায়ন করবে।