গালিবের জীবনী নিয়ে ‘জাতিস্মর’-এর হিন্দি রিমেক, চমক সৃজিতের

গালিব,সৃজিত

নিউজ ডেস্ক: প্রেম-ভালবাসা, জীবনদর্শনের এর আস্ত দলিল গালিব-সৃষ্ট গজল, শায়েরি। আর সেই কবির জীবনকাহিনিই এবার বলিউডের সিনেপর্দায় আসছে।

নেপথ্যে জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায় (Srijit Mukherjee, )। সিনেদর্শকদের জন্য চমক কিন্তু এখানেই শেষ নয়! মির্জা গালিবের জীবনকাহিনিকে ‘জাতিস্মর’ (Jaatishwar)-এর ছাঁচে ফেলে সিনেমা তৈরি করতে চলেছেন ‘মুখুজ্জ্যেমশাই’।

আরেকটু খোলসা করে বললে, এবার ‘জাতিস্মর’-এর হিন্দি রিমেক হতে চলেছে। নেপথ্য পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায় খোদ। যে ছবি কিনা তাঁর ঝুলিতে জাতীয় পুরস্কার এনে দিয়েছিল। এই অবশ্য প্রথম নয়। এর আগেও নিজস্ব ছবি ‘রাজকাহিনি’কে জাতীয়স্তরের দর্শকদের কাছে পৌঁছে দিয়েছিলেন তিনি।

বিদ্যা বালানকে নিয়ে তৈরি করেছিলেন ‘বেগমজান’। সেই ছবি যদিও বাঙালি দর্শকমনে সেভাবে ঠাঁই পায়নি। তবে এবার ‘জাতিস্মর’-এর হিন্দি রিমেকের ভাবনা কিন্তু ইতিমধ্যেই শোরগোল ফেলে দিয়েছে।

অ্যান্টনি ফিরিঙ্গি নয়, হিন্দি রিমেকের জন্য তিনি বেছে নিয়েছেন মির্জা গালিবের (Mirza Ghalib) জীবনকাহিনি। ছবির নামও সেভাবে পরিবর্তিত হয়েছে। আপাতত, সিনেমার নাম রাখা হয়েছে, ‘হ্যায় ওহ আতিশ গালিব’। নতুন বছরের শুরুতেই যে সৃজিত মুখোপাধ্যায় চমক নিয়ে হাজির হয়েছেন, তা বলাই বাহুল্য।

সিনেমার গান লিখেছেন গুলজার (Gulzaar) সাহেব। এবং গান বাঁধার দায়িত্ব বর্তেছে ‘মোজার্ট অফ মাদ্রাস’ এ আর রহমানের (A. R. Rahman) উপর। সিনেমায় মোট নয়টি গান থাকছে। সেগুলির সবকটাই গুলজারের লেখা। গালিবের গজল, কবিতা, শায়েরি এবং গুলজার-রহমানের জুটি যে সৃজিতের ‘জাতিস্মর’-এর হিন্দি রিমেককে এক অন্য মাত্রায় পৌঁছে দেবে, তাতে কোনও সন্দেহ নেই।

এবার প্রশ্ন মির্জা গালিবের ভূমিকায় কাকে দেখা যাবে? ‘জাতিস্মর’-এ অ্যান্টনি ফিরিঙ্গির ভূমিকায় অভিনয় করে দর্শকদের মন কেড়েছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। তাঁকেই কি দেখা যাবে ছবির হিন্দি রিমেকে? কানাঘুষো কিন্তু শোনা যাচ্ছে অন্য কথা! গতবছরই সৃজিতের ছবিতে নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকিকে (Nawazuddin Siddiqui) কাস্ট করার কথা শোনা গিয়েছিল।

যদিও সেই ছবির বিষয়বস্তু ভিন্ন। তবে ইতিমধ্যেই নন্দিতা দাসের পরিচালনায় ‘মান্তো’ ছবিতে যেহেতু নওয়াজের অভিনয় দর্শকদের মুগ্ধ করেছে, কাজেই ‘হ্যায় ওহ আতিশ গালিব’-এ নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকিকে কাস্ট করার সম্ভবনা কিন্তু একেবারেই উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। উল্লেখ্য, এর আগে নওয়াজ নিজেও একবার সৃজিতের সঙ্গে কাজ করার ইচ্ছেপ্রকাশ করেছিলেন। তবে পরিচালক কিন্তু এই বিষয়ে মুখে কুলুপ-ই এঁটেছেন। তা কাকে দেখা যাবে মির্জা গালিবের ভূমিকায়? তা অবশ্য সময়ই বলবে।

সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

ঢাকানিউজ২৪ডটকম