আজ থেকে ঢুকবে ভারতীয় পেঁয়াজ

পেঁয়াজ
ভারতীয় পেঁয়াজ

নিউজ ডেস্ক: আভ্যন্তরীণ জট কাটিয়ে অবশেষে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রফতানি করার সিদ্ধান্ত ভারত সরকারের। প্রায় সাড়ে ৩ মাস পর সোমবার রফতানি বন্ধের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছে নয়া দিল্লি। নতুন ফরমানে আগামী ১ জানুয়ারি থেকে বাংলাদেশে পেঁয়াজ পাঠানোর কাজ শুরু হচ্ছে।

এদিকে ফরমান আসতেই সীমান্তের বাণিজ্যিক লেনদেনে লেগেছে সাড়া। ভারত থেকে বাংলাদেশের পেঁয়াজ রফতানি হয় সর্বাধিক। সেই বাণিজ্য আটকে ছিল ভারতের অভ্যন্তরে পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধির জন্য। সংকট কাটাতে রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করে ভারত সরকার। এর জেরে বাংলাদেশের পেঁয়াজ বাজারে বাড়তে থাকে দাম। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মিশর, পাকিস্তান থেকে পেঁয়াজ আমদানি করে বাংলাদেশ।

নতুন বছরের শুরুতে পেঁয়াজ রফতানি করবে ভারত এই খবর আসতেই সীমান্তের অন্যতম হিলি স্থলবন্দরের ব্যবসায়ীদের মধ্যে সাড়া পড়েছে। বাংলাদেশের দিনাজপুর ও পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ দিনাজপুরের মধ্যে হিলি হল গুরুত্বপূর্ণ স্থল বাণিজ্য কেন্দ্র।

বাংলাদেশের হিলি স্থলবন্দরের ব্যবসায়ীরা জানান, ভারত সরকার গত ১৪ সেপ্টেম্বর পূর্ব ঘোষণা না দিয়ে অভ্যন্তরীণ সংকট ও মূল্যবৃদ্ধির অজুহাত দেখিয়ে বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করেছিল।

হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রফতানি গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ জানান, ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি করবো কিনা তা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মিটিং করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। রফতানি বন্ধের আগে আমাদের ১০ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজের এলসি করা ছিল। অনেক অনুরোধের পরও সেই পেঁয়াজ ভারত আমাদের দেয়নি। এতে করে ব্যবসায়ীদের বিপুল ক্ষতি হয়েছে। আর এখন দেশে ব্যাপক পেঁয়াজের চাষ হয়েছে। কৃষকেরা যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেই বিষয়ের প্রতিও খেয়াল রাখতে হবে।

সূত্র কলকাতা ২৪

ঢাকানিউজ২৪ডটকম