‘বিনা দাওয়াতে’ মাহফিলে অংশগ্রহণ, মামুনুল হকের বিরুদ্ধে মামলা

‘বিনা দাওয়াতে’ মাহফিলে অংশগ্রহণ, মামুনুল হকের বিরুদ্ধে মামলা

নিউজ ডেস্ক: প্রশাসনের কাছে তথ্য গোপন করে কুমিল্লায় দাওয়াত ছাড়া ওয়াজ মাহফিলে গিয়ে বক্তব্য রাখার অভিযোগে হেফাজত ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। কুমিল্লার চান্দিনা থানায় পুলিশ বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেছে বলে জানা গেছে।

শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন বাংলাদেশ ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মিছবাহুর রহমান চৌধুরী।

মামুনুল হকের অংশগ্রহণের বিষয়টি গোপন রেখে ওই মাহফিলে তাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল বলে দাবি করেছেন তিনি। তিনি বলেন, গত ১৫ ডিসেম্বর কুমিল্লার চান্দিনা থানাধীন জোয়াগ পশ্চিমপাড়া এলাকায় দুই দিনব্যাপী ইসলামী মহাসম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে আয়োজকরা আমাকে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেয়ার জন্য দাওয়াত করেন। ওই সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষে রাত ১১টায় ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হই। আমি ঢাকায় পৌঁছে শুনতে পেলাম হেফাজত নেতা মাওলানা মামুনুল হক বিনা দাওয়াতে ওই মাহফিলে যোগ দেন। তার কিছু অনুসারীদের অনুরোধে রাত ১২টার পর তিনি বক্তৃতা করেন।

লিখিত বক্তব্যে মিছবাহুর রহমান চৌধুরী আরও দাবি করেন, ঐ মাহফিলের পরের দিন মামুনুল হকের ব্যক্তিগত ও জামায়াত-শিবিরের ফেসবুক ইউটিউবসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে “মামুনুল হকের মাহফিলে মিছবাহুর রহমান চৌধুরী” এমন শিরোনামে নানা প্রপাগাণ্ডা চালাতে থাকে। বিনা দাওয়াতে মাহফিলে যোগ দেওয়া এবং তা নিয়ে মিথ্যাচার করার অভিযোগ এনে এর একদিন পর ১৭ ডিসেম্বর কুমিল্লার চান্দিনা থানায় এ বিষয়ে একটি মামলা হয় বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানান মিছবাহুর রহমান চৌধুরী। মামলা নং: ১৬।

মূলত দাওয়াত ছাড়া মাহফিলে গিয়ে ইসলামের ভাবমূর্তি নষ্ট করে দেশের মধ্যে একটি অরাজকতা তৈরি করতেই বিএনপি-জামায়াতের মদদে মামুনুল হক এসব করছেন বলে লিখিত বক্তব্যে দাবি করেন ইসলামী ঐক্যজোটের একাংশের চেয়ারম্যান।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, একটি গোষ্ঠী পরিকল্পিত ভাবে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণের বিরোধিতা করলেও জিয়াউর রহমান ও বেগম খালেদা জিয়ার ভাস্কর্য ভাঙার বিষয়ে কোন কথা বলছে না। বিএনপি-জামায়াতের মদদে শান্তি বিনষ্ট করে ফেৎনা ছড়াতেই মামুনুল হক গোষ্ঠী এসব করছে বলেও জানান তিনি। এসব বিতর্কিত আলেমদের মাহফিলের আয়োজকরা এখন আর দাওয়াত দিতে চান না উল্লেখ করে তিনি জানান, তাই বিনা দাওয়াতে মামুনুল হক সেখানে গিয়ে বক্তব্য দিয়েছেন।