যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্কের উন্নতি হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক:    পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন বলেছেন, প্রত্যেক দেশের সরকারই তাদের স্বার্থ দেখে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন সরকারও সেটি করবে। তাদের নিজেদের গরজে এবং ভূ-রাজনৈতিক গুরুত্বের কারণে বাংলাদেশের সঙ্গে আমেরিকার নতুন সরকারের বাণিজ্যিক সম্পর্কের উন্নতি হবে। তারা নতুন নতুন ক্ষেত্রে বিনিয়োগ করবে। তিনি বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের বিদায়ী সরকারের সঙ্গেও বাংলাদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ছিলো। নতুন সরকারের সঙ্গেও সুসম্পর্ক থাকবে।’

শনিবার বিকেলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শনে আসেন। এ সময় তিনি শহীদ ড. শামসুজ্জোহার কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সু চীর নেতৃত্বে নতুন সরকার মিয়ানমারে ক্ষমতায় এসেছে। এবার সু চী অনেক সময় পাবেন। আশা করি, বদনাম ঘোচাতে রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে মিয়ানমারের নতুন সরকার আগ্রহী হবে। এতে বিশ্বের অন্যান্য দেশও সহযোগীতা করবে।’

ড. একে আব্দুল মোমেন শনিবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ে এলে তাকে স্বাগত জানান উপাচার্য প্রফেসর এম আব্দুস সোবহান। এ সময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিশ্ববিদ্যালয় ঘুরে দেখেন। পরিদর্শন শেষে সিনেট ভবনে এক মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন তিনি।