বিশ্ব ভালো নেই, ভালো নেই আমার দেশ: সাকিব

নিউজ ডেস্ক:   করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে এবং দেশের অসহায় মানুষের পাশে এসে দাঁড়াতে সাকিব আল হাসান প্রতিষ্ঠা করেছেন, দি সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশন। এই ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে অনুদান হিসেবে পাওয়া অর্থ এরই মধ্যে সাকিব পিপিই এবং খাদ্য সহায়তা হিসেবে দিয়েছেন। শুক্রবারও অনুদান দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে ফেসবুকে লাইভে আসেন সাকিব। সেখানে যাদের সামর্থ্য আছে তাদের করোনা মোকাবিলায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানানোর পাশপাশি কথা বলেছেন যুক্তরাষ্ট্রে তার কিভাবে সময় কাটছে তা নিয়েও।

সাকিব আল হাসান জানান, পরিবারের কাছে থেকেই তার সময় কাটছে এবং বাসায় বসে তার খুব একটা খারাপ লাগছে না, ‘সবসময়ই অভিযোগ থাকে যে, পরিবারকে ঠিক মতো সময় দিতে পারি না। কিন্তু এখন পরিবারকে দেওয়ার যথেষ্ঠ সময় পাচ্ছি। আমার একটা বাচ্চা আছে। খেলা থাকার কারণে তাকে আমি সময় দিতে পারি না। কিন্তু এখন তার সঙ্গে গল্প করছি, গেম খেলছি। এখন যখন ওর সঙ্গে সময় কাটাচ্ছি, মনে হচ্ছে কতকিছু না এতোদিন মিস করেছি।’

এছাড়া বাসায় বসে সাকিব আল হাসান খাওয়া-দাওয়ায়ও বেশ মনোযোগ দিয়েছেন। খেলার সুবাদে আগে খাবার-দাবার নিয়ে অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে। তবে ঘরবন্দি এই সময়ে ডায়েট চার্ট অনুসরণ করছেন না তিনি। অনেক খাওয়া-দাওয়া করছেন। আর সে কারণে তার ওজনও বেড়েছে বলে ধারণা সাকিবের। তবে তার মাথা থেকে করোনার প্রাদুর্ভাবের চিন্তা যাচ্ছে না। সারা বিশ্বকে কোণঠাসা করে ফেলেছে এই ভাইরাস। বাংলাদেশের মানুষ কষ্টে আছেন বিষয়টি তাকে বেশ ভাবাচ্ছে।

সাকিব বলেন, ‘পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে পারছি এটাই আমার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। এমন নয় যে, আমার বাসায় বসে খুব খারাপ লাগছে। তবে এসবের মধ্যে যখনই করোনা পরিস্থিতির কথা মনে আসছে খুবই খারাপ লাগছে। বিশ্বের অবস্থা ভালো নয়। বিশ্ব ভালো নেই, ভালো নেই আমার দেশও। এই করোনা পরিস্থিতি থেকে আমরা দ্রুতই মুক্তি পাবো এবং স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারবো সেই প্রার্থনাই আমি করছি।’