শচীন টেন্ডুলকারকেও ছাপিয়ে যাবেন কোহলি: ফারুক

নিউজ ডেস্ক: শিরোনামের শেষে প্রশ্নবোধক চিহ্নটা রাখতেই হচ্ছে। কারণ, ফারুখ ইঞ্জিনিয়ার নিজেই বলেছেন, তাঁকে ভারতের সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যান বলার সময় এখনো আসেনি। খেলতে থাকুক, অধরা রেকর্ড আর মাইলফলকগুলো ধরা দিক, তারপর বলা যাবে। পদ্মশ্রী পুরস্কার পাওয়া ভারতের সাবেক উইকেটরক্ষক ফারুখ ইঞ্জিনিয়ার আপাতত এটুকু বলে রাখলেন, বিরাট কোহলি কিন্তু ছাপিয়ে যাবে শচীন টেন্ডুলকারকেও।

ফারুখ ইঞ্জিনিয়ার—নামটা এই প্রজন্মের কাছে অচেনা লাগতে পারে। ভারতের উইকেটরক্ষকদের ইতিহাসে মহেন্দ্র সিং ধোনিদের পথিকৃৎ ফারুখ ইঞ্জিনিয়ার। সত্তরের দশকে তিনি দেখিয়েছিলেন, শুধু কিপিং গ্লাভস নয়, ব্যাটিং গ্লাভস পরেও ম্যাচ জেতাতে পারেন উইকেটরক্ষক। বর্তমানে আইপিএলে ম্যাচ রেফারির দায়িত্বে থাকা ৮০ বছর বয়সী সাবেক এই ক্রিকেটার আর দশজনের মতোই কোহলির গুণমুগ্ধ। তাঁর বিশ্বাস, ভারতের সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যান হওয়ার সামর্থ্য রয়েছে কোহলির।

ভারত তো বটেই, সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যানদের কাতারেও টেন্ডুলকারের নামটা ওপরের দিকে। প্রশ্নাতীতভাবেই তো তিনি সফলতম। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বাধিক রান আর সেঞ্চুরির রেকর্ড টেন্ডুলকারের দখলে। ২০১৩ সালে টেন্ডুলকার অবসর নেওয়ার সময় থেকেই আলোচনা চলছে ‘লিটল মাস্টার’-এর রেকর্ড কেউ ভাঙতে পারলে কোহলিই পারবেন। বলার অপেক্ষা রাখে না, ভারতীয় অধিনায়ক সেই পথে এগিয়ে যাচ্ছেন দৃপ্ত পদক্ষেপে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এরই মধ্যে ৫৮টি সেঞ্চুরি হয়ে গেছে ২৯ বছর বয়সী কোহলির। যে গতিতে এগোচ্ছেন আর তাঁর যে ফিটনেস, তাতে রান ও সেঞ্চুরিসংখ্যায় টেন্ডুলকারকে কোহলি ছাপিয়ে গেলে সেটি অস্বাভাবিক কিছু হবে না।

ফারুখ ইঞ্জিনিয়ার কিন্তু এখনই ব্যাপারটা আঁচ করতে পারছেন। সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘প্রত্যেক প্রজন্মেই কেউ না কেউ থাকে। একসময় শচীন টেন্ডুলকার কিংবা সুনীল গাভাস্কার ছিলেন। এখন কোহলির যুগ। তার কিন্তু সর্বকালের (ভারতের) সেরা হওয়ার সামর্থ্য রয়েছে। শচীন কিংবা সুনীলকেও ছাপিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তার মধ্যে।’

২০১৪ সালে ইংল্যান্ড সফরে গিয়ে ৫ টেস্টে মাত্র ১৩.৪০ গড়ে রান করেছিলেন কোহলি। এবার ৩ টেস্টেই ৭৩.৩৩ গড়ে রান ৪৪০। কোহলি অনেক বড় মাপের ব্যাটসম্যান বলেই এভাবে নিজের রূপান্তর ঘটিয়েছেন। যদিও ফারুখ ইঞ্জিনিয়ার তাঁকে এখনই টেন্ডুলকার কিংবা সুনীলের ওপরে রাখতে চাচ্ছেন না, ‘তাঁকে এখনই এসব বলার দরকার নেই। আগে মাইলফলকে পৌঁছাক, রেকর্ডগুলো ভাঙুক, তারপর বলা যাবে।’

সাউদাম্পটনে আজ থেকে শুরু হবে সিরিজের চতুর্থ টেস্ট। গোটা সিরিজে কোহলির ব্যাটিংয়ে ভীষণ মুগ্ধ ফারুখ ইঞ্জিনিয়ার। চার বছর আগে ইংল্যান্ডের সেই কোহলির সঙ্গে এবারের কোহলির বিস্তর ফারাক দেখছেন তিনি, ‘ইংল্যান্ডে সর্বশেষ সফরে তার আত্মবিশ্বাসে ঘাটতি ছিল। আমার মতে, (এবার) সে দারুণ ব্যাটিং করছে। দলের খেলার মানদণ্ড সে স্থাপন করেছে অসাধারণভাবে—আমি পারলে তোমরাও পারবে।’