২০ সেপ্টেম্বর ইসি ও ১১ অক্টোবর সচিবালয় ঘেরাও কর্মসূচি: বামজোট

নিউজ ডেস্কঃ  আগামী ২০ সেপ্টেম্বর নির্বাচন কমিশন (ইসি) ও ১১ অক্টোবর সচিবালয় ঘেরাও কর্মসূচি ঘোষণা করেছে আটদলীয় বাম গণতান্ত্রিক জোট। বুধবার ২৯ আগস্ট পুরানা পল্টনের সিপিবি কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসের কর্মসূচি জানায় বামজোটের নেতারা।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, বর্তমান নির্বাচন কমিশনের পুনর্গঠন ও বিদ্যমান নির্বাচনি ব্যবস্থার আমূল সংস্কারের দাবিতে আগামী ২০ সেপ্টেম্বর ঢাকায় নির্বাচন কমিশন অভিমুখে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হবে। এছাড়া জেলা পর্যায়ে জেলা নির্বাচন অফিস অভিমুখে বিক্ষোভ, সীমাহীন দুর্নীতি ও দুঃশাসন প্রতিরোধে এবং ব্যাংক ডাকাতির লুটপাটের প্রতিবাদে ১১ অক্টোবর সচিবালয় অভিমুখে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হবে। অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন নিশ্চিত করতে জোটের পক্ষ থেকে সুনির্দিষ্ট দাবি আদায়ে সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসজুড়ে দেশব্যাপী জনসভা করার কথাও জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

জোটের সমন্বয়ক সাইফুল হক জানান, চার দফা দাবির প্রেক্ষিতে জোটটি দেশব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। আগামী ৩০ আগস্ট ৪টায় মুক্তিভবনের মৈত্রী হলে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সঙ্গে মতবিনিময় সভা হবে। আগামী ৮ সেপ্টেম্বর বিকাল ৫টায় মুক্তিভবনের প্রগতি সম্মেলন কক্ষে বুদ্ধিজীবী ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময়, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন নিশ্চিত করতে আগামী ১০ সেপ্টেম্বর ঢাকাসহ দেশব্যাপী জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে বিক্ষোভ সমাবেশের মাধ্যমে দাবি দিবস পালন করবে বামজোট।

সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগেই জাতীয় সংসদ ভেঙে দেওয়ার দাবি করেছে বাম গণতান্ত্রিক জোট। একই সঙ্গে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ তদারকি সরকার গঠন, বর্তমান নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন, টাকার খেলা ও পেশীশক্তি নির্ভর বিদ্যমান গোটা নির্বাচনি ব্যবস্থার আমূল সংস্কারের দাবি করে জোটটি।

সংবাদ সম্মেলনে জোটের কেন্দ্রিয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।