নির্বাচন-জোট নিয়ে সিপিবি নেতাদের সঙ্গে কাদেরের আলোচনা

নিউজ ডেস্ক: আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকের পরদিন আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টায় দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী তোপখানা রোডস্থ বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) কার্যালয়ে যান। এ সময় ওবায়দুল কাদের সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক শাহ আলমসহ অন্যান্য নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি, কোটা আন্দোলন, আগামী নির্বাচন এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক জোট নিয়ে তাদের মধ্যে আলোচনা হয়েছে বলে বৈঠক সূত্র জানিয়েছে।

জানা গেছে, বাম ঘরানার রাজনৈতিক দলগুলোর নেতাদের সঙ্গে ধারাবাহিক বৈঠকে বসবেন ওবায়দুল কাদের। এরই অংশ হিসেবে মঙ্গলবার বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন তিনি। ২০১৪ সালের দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেয়নি সিপিবি। নির্বাচনের আগে গণভবনে সিপিবির সঙ্গে বৈঠক করে তাদের নির্বাচনে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছিল আওয়ামী লীগ। কিন্তু নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ব্যাপারে অপারগতা প্রকাশ করে সিপিবি। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে সম্প্রতি আটটি বাম দল নিয়ে একটি জোট করেছে সিপিবি। অন্যদিকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোট ও নির্বাচনী মহাজোট বৃদ্ধির তৎপরতা চালাচ্ছে আওয়ামী লীগ। এমনকি বিএনপি না এলেও যত সম্ভব বেশি রাজনৈতিক দলকে নির্বাচনে নিয়ে আসারও তৎপরতা আছে সরকারি দলের নীতিনির্ধারকদের মধ্যের। এরই অংশ হিসেবে সম্প্রতি আওয়ামী লীগ ও ১৪ দলের সঙ্গে তৃণমূল বিএনপিসহ ৯টি রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতারা বৈঠক করেন।

আওয়ামী লীগের তিনজন কেন্দ্রীয় নেতা জানান, সিপিবিকে নির্বাচনে আনার ব্যাপারে আওয়ামী লীগের আগ্রহ আছে। আট দলীয় জোট করার পর তাদের প্রতি আগ্রহ আরও বেড়েছে। তাদের সঙ্গে প্রাথমিক একটা কর্ম সম্পর্ক গড়ে তোলার লক্ষ্য থেকে ওবায়দুল কাদের সিপিবি কার্যালয়ে যেতে পারেন। অন্যদিকে সিপিবি’র পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছুই জানানো হয়নি। তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে দলের এক নেতা বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক অনেকটা আকস্মিকভাবে আমাদের কার্যালয়ে এসেছিলেন। এই সাক্ষাৎ সৌজন্যমূলক। এই সাক্ষাতে জোট গঠন ও নির্বাচন নিয়ে আলোচনা হয়েছে।’

আওয়ামী লীগ ও বাম রাজনৈতিক সূত্রে জানা গেছে, ওবায়দুল কাদের আরও কিছু বাম দলের নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। দুই-একদিনের মধ্যে তিনি বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। ওবায়দুল কাদের বাম গণতান্ত্রিক জোটভুক্ত ৮টি দলের প্রত্যেকটির সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে পারেন। বাম জোটভুক্ত অন্য দলগুলো হলো বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টি, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ, সমাজতান্ত্রিক আন্দোলন, গণসংহতি আন্দোলন ও বাসদ (মাক্সবাদী)।