রাশিয়া ছাড়ার আগে ফুটবলকে রোনালদোর সম্মান

নিউজ ডেস্ক: ম্যাচের ৬২ মিনিটে দলের হয়ে দ্বিতীয় গোলটি করেছেন এডিনসন কাভানি। পূর্ণ করেছেন পর্তুগালের বিপক্ষে শেষ আটের যাওয়ার লড়াইয়ে নিজের দ্বিতীয় গোল। রোনালদোদের বিশ্বকাপ স্বপ্নকে কফিন বানিয়ে তাতে শেষ পেরেক ঠুকে দিয়েছেন পিএসজি স্ট্রাইকার কাভানি। কিন্তু ম্যাচের ৭৬ মিনিটে পায়ে চোট পান তিনি। খুঁড়াতে খুঁড়াতে মাঠের বাইরে যেতে থাকেন কাভানি। এমন সময় কাভানিকে মাঠ ছাড়তে সহায়তা করতে এগিয়ে গেলেন রোনালদো।

দল হারতে বসলেও রোনালদো দেখালেন পেশাদারিত্ব। ফুটবলকে দেখালের সম্মান। রাশিয়া বিশ্বকাপের সুন্দরতম দৃ্শ্য ফ্রেম বন্দী হলো রোনালদোর সুবাদে। উরুগুয়ের তারকা কাভানিকে মাঠ ছাড়তে সহায়তা করার জন্য পর্তুগিজ যুবরাজ রোনালদো শুধু নিজের হাত বাড়িয়ে দিলেন না। বাড়িয়ে দিলেন নিজের কাঁধও। রোনালদোর কাঁধে হাত রেখে ব্যথায় কাতর কাভানি মাঠ ছাড়লেন।

পর্তুগাল তখন ২-১ গোলে পিছিয়ে। অনেকে এটা নিয়ে মন্তব্য করছেন কাভানি ধীরে ধীরে মাঠ ছাড়ায় সময় বাঁচাতে রোনালদো এগিয়ে যান তাকে সাহায্য করতে। কথা ফেলে দেওয়ার মতো নয়। কিন্তু রোনালদো তার জন্য কাভানির সতীর্থদের তাড়া দিতে পারতেন। রেফারিকেও বিষয়টি জানাতে পারতেন। কিন্তু এগিয়ে গেলেন নিজে। অন্তঃনিহিত মানের উদ্ধে গেলে রাশিয়া বিশ্বকাপে রোনালদো এই মানসিকতা ফুটবলের সুন্দরতম দৃশ্য হয়েই থাকবে।

উরুগুয়ের বিপক্ষে হেরে রাশিয়া থেকে বিদায় নিতে হবে রোনালদোদের। বাকি ফুটবল ম্যাচগুলো হয়তো তাকে দেশে বসে টিভির সামনে থেকে দেখতে হবে। আরও একটা বিশ্বকাপে রোনালদোকে মাঠে দেখার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। আর তাই রাশিয়াকে বিদায় বলার আগে রোনালদো ফুটবলকে সম্মান জানিয়ে গেলেন। মুখে উচ্চারণ না করেও বলে গেলেন, এটা ফুটবল। হার-জিত থাকবে। তার জন্য ফুটবলের সৌন্দর্য নষ্ট করো না।