মেক্সিকোর বিপক্ষে জয় পেতে সবকিছুই করবে ব্রাজিল!

নিউজ ডেস্কঃ মেক্সিকোর বিপক্ষে শেষ ষোলোর লড়াইয়ে নিজেদের ফেভারিট মানতে রাজি নন কাসেমিরো। ব্রাজিলীয় মিড ফিল্ডারের মতে, গ্রুপপর্ব থেকে জার্মানির বিদায়ে প্রমাণ হয়েছে ফেভারিট তত্ত্ব অর্থহীন। তবে কথা দিয়েছেন জয়-পরাজয় যাই হোক না কেন দারুণ ফুটবল খেলবে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

আগামীকাল সামারায় বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে নামবে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। গতবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানির পরিণতি দেখার পর রিয়াল মাদ্রিদ মিডফিল্ডার কোনো কিছুই নিশ্চিত ধরে নিচ্ছেন না, ফেভারিটের তত্ত্ব আপনাদের থেকে আসে। জার্সি আপনাকে ম্যাচ জেতাবে না। জার্মানির দিকে তাকান। যেসব খেলোয়াড় তাদের আছে, ফেভারিটের তকমা, এরপরও তারা প্রথম রাউন্ড থেকে ছিটকে গেল। এ নিয়ে আমরা শান্ত আছি। আমাদের সব খেলোয়াড়ই উঁচু মানের, তাদের ক্লাবগুলো সব সময় ফেভারিট। তাই আমরা এরই মধ্যে চাপ ও আপনাদের ফেভারিটের তত্ত্বের সঙ্গে অভ্যস্ত। আমাদের সব প্রতিপক্ষের প্রতিই শ্রদ্ধা, স্থিরতা ও বিনয় আছে। মেক্সিকোকে হারাতে আমাদের সেরা ফুটবলই খেলতে হবে।

মেক্সিকোর বিপক্ষে ব্রাজিলকে এগিয়ে রাখার অন্যতম কারণ বিশ্বকাপে লাতিন দলগুলোর বিপক্ষে মেক্সিকানদের অতীতের বাজে রেকর্ড। রাশিয়ার আগে ১৫টি আসরে লাতিন দলগুলোর বিপক্ষে মাত্র একটি জয় তাদের। সেটি এসেছিল ২০০২ সালে ইকুয়েডরকে হারিয়ে।

মেক্সিকোকে পিছিয়ে রাখার আরেকটি কারণ ধারাবাহিকতার অভাব। চলতি আসরের প্রথম ম্যাচে দুর্দান্ত ফুটবলে জার্মানিকে হারায় হুয়ান কার্লোস ওসোরিওর দল। পরের ম্যাচেও ছন্দ ধরে রেখে জয় তুলে নেয় দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে। কিন্তু শেষ ম্যাচে সুইডেনের বিপক্ষে খুঁজেই পাওয়া যায়নি উত্তর আমেরিকার দলটিকে। ৩-০ গোলের হারে গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে শেষ ষোলোয় পৌঁছে তারা।

তবে প্রতিপক্ষকে খাটো করে দেখতে রাজি নন কাসেমিরো, আপনি মেক্সিকোর বিপক্ষে দারুণ ফুটবল খেলতে পারেন এবং বাদ পড়তে পারেন। হারার অনেক উপায় আছে। কিন্তু আমি বলতে পারি যদি আমরা ম্যাচটা হারি, ভালো খেলেই হারব। ফলাফল ভিন্ন বিষয়। তিতে আমাদের থেকে একমাত্র যেটা চান তা হল ভালো খেলা। যে কোনো মুহূর্তে বল জালে ঢুকতে পারে। আমি নিশ্চিত, ভালো একটা ম্যাচ খেলার জন্য আমরা আমাদের সব কিছুই করব।
এদিকে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো ও নেইমারের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করতে গিয়ে তাদেরকে ‘অন্য গ্রহের ফুটবলার’ বলেছেন কাসেমিরো। তার মতে, আর্জেন্টিনার লিওনেল মেসিও তাদের পর্যায়ের।

ব্রাজিল দলে নেইমারের গুরুত্বটা ভালো করেই জানা কাসেমিরোর। জাতীয় দলের এই সতীর্থকে রিয়াল মাদ্রিদেও সতীর্থ হিসেবে পাওয়ার সম্ভাবনা আছে তার। কেননা বেশ কিছুদিন ধরেই গুঞ্জন, পিএসজি ছেড়ে রিয়ালে নাম লেখাতে পারেন নেইমার। তা সত্যি হলে, রোনাল্ডো-নেইমার হবেন সতীর্থ!

সময়ের অন্যতম সেরা এই দুই ফুটবলার প্রসঙ্গে কাসেমিরো বলেন, এই দু’জন ব্যতিক্রমী খেলোয়াড়। তারা যেকোনো মুহূর্তে ম্যাচের ফল পরিবর্তন করে দিতে পারে। আমার মতে, তারা অন্য গ্রহের। তারা বিশ্বের সেরা তিনজন খেলোয়াড়ের মধ্যে আছে। রোনাল্ডো, মেসি ও নেইমার বিশ্বের সেরা তিন খেলোয়াড়। নেইমার প্রসঙ্গে বলতে গেলে, সে যেকোনো মুহূর্তে ম্যাচের ফল পরিবর্তন করে দিতে পারে। আর এ কারণেই তাকে বিশ্বের সেরা তিন খেলোয়াড়ের একজন হিসেবে বিবেচনা করা হয়।