১০০ বছরের মধ্যেই ধ্বংস হবে মানব সভ্যতা : হকিং

নিউজ ডেস্ক: সদ্যপ্রয়াত কিংবদন্তি বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং আগে বলেছিলেন, ১০০০ বছর টিকবে মানুষ। কিন্তু মৃত্যুর আগে আশ্চর্যজনক ভাবে মত বদলেছিলেন বর্ষীয়ান বিজ্ঞানী। মৃত্যুর আগে করা ভবিষ্যদ্বাণীতে মানুষের জন্য সতর্কবার্তা রেখে গিয়েছেন বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং। জানিয়ে গেছেন এই নীল রংয়ের গ্রহতে আর ক’দিন টিকবে মানুষের রাজপাট। ঠিক কী বলে গিয়েছিলেন কিংবদন্তি বিজ্ঞানী?

তিনি বারে বারে মুখ খুলেছেন পৃথিবীর স্থায়িত্ব নিয়ে। তবে প্রাথমিক ভাবে পৃথিবীর আয়ু কথা বলতে গিয়ে তিনি যা বলেছিলেন, পরবর্তী কালে নিজেই সরে এসেছেন তার থেকে।

‘দ্য ইনকুইরার’ নামের আন্তর্জাতিক ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, প্রাথমিক ভাবে মানব সভ্যতার আয়ু সম্পর্কে জানাতে গিয়ে তিনি বলেছিলেন, আরও অন্তত ১০০০ বছর টিকে যাবে মানুষ। কিন্তু মৃত্যুর আগে মত বদলেছিলেন বর্ষীয়ান বিজ্ঞানী।

সম্প্রতি তিনি জানিয়েছিলেন, আর ১০০ বছরের মধ্যেই ধ্বংস হবে মানব সভ্যতা। হকিং বলেছিলেন, বর্তমানে বিজ্ঞানের যে গতি, তাকে বাড়াতে হবে। দ্রুত আবিষ্কার করতে হবে দূরপাল্লার মহাকাশ যাত্রা ও ভিন গ্রহে বসবাসের কায়দা। যাতে পৃথিবী ধ্বংসের মুখে পড়লেই এই গ্রহ ছেড়ে চলে যাওয়া যায়।

সভ্যতার ভবিষ্যৎ নিয়ে বরাবরই চিন্তিত ছিলেন হকিং। নানা বিষয়েই তিনি সতর্ক করেছেন। তার মধ্যে অন্যতম হল এআই বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা। যন্ত্রের ‘চেতনা’ চলে এলে সে যে আর মানুষের নিয়ন্ত্রণে থাকবে না, উলটে সভ্যতাকেই বিপন্ন করে তুলতে পারে, সে ব্যাপারে বার বার সতর্ক করেছেন হকিং।