যুদ্ধপরাধীরাদের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসতে দেয়া যাবে না: খাদ্যমন্ত্রী

কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি: খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেছেন, যুদ্ধপরাধীরা আবারো রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসতে চায় এদের প্রতিহত করতে আমাদের সকলকে সচেষ্ট থাকতে হবে। সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনকালীন সরকারের নেতৃত্ব দেবেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার নির্বাচনে আসা না আসা আদালতের বিষয়।

তারা যদি নির্বাচনে না আসে তবে কঠিন সংকটে পড়বে। যারা আগুন সন্ত্রাস করে যারা দেশের মানুষকে পুরিয়ে হত্যা করে ,যারা মুক্তিযুদ্ধকে নিয়ে বিভ্রান্তকরে তাদের বিরুদ্ধে আগামী রায় হবে। ২৬ মার্চ ২০১৮ইং সকালে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে কেরানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ মাঠ চত্তর আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ উন্নয়নের মহাসড়কে ভাসছে ,আমরা এখন উন্নয়নশীল দেশের আওতায় এসেছি । এটা যুদ্ধোপরাধী ও বিএনপি নেতাদের চোখে পরেনা। ১৯৭৫ সালের পর আমরা দেশের যুদ্ধের ইতিহাস ভুলে গিয়েছিলাম । বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা আবার স্বপ্ন দেখতে শিখেছি।

মন্ত্রী শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, তোমাদের বুকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করতে হবে। ১৯৫২ এর ভাষা আন্দোলন, ’৬৬র ৬ দফা, ’৬৯র গণঅভ্যুত্থান, ’৭০র নির্বাচন ও ’৭১র মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে তোমাদের জ্ঞান অর্জন করতে হবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্বে করেন, কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শাহে এলিদ মাইনুল আমিন,বিষেশ অতিথি ছিলেন
কেরানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদ।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন – কেরানীগঞ্জ সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) পারভেজুর রহমান, দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইমরুল হাসান, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম, উপজেলা কৃষি অফিসার মো.ফখরুল আলম , উপজেলা সমাজ কল্যান অফিসার মো. ফখরুল আশ্রাফ, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মাজেদা সুলতানা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার নিলুফা বেগম ,উপজেলা সমবায় অফিসার তাসলিমা আক্তার কজিনজিরা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হাজী মো. সাকুর হোসেন (সাকু) তেঘরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মো. জজ মিয়া, শাক্তা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মো. সালাহউদ্দিন লিটন, বাস্তা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মো.আশকর আলী , কালিন্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক ,আওয়ামীলীগ , ছাত্রলীগ ,যুবলীগ সেচ্ছাসেবক লীগ,শ্রমিকলীগের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে কেরানীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যানের সহযোগিতায় ২২ শহীদ পরিবারকে নগদ অর্থ প্রদান ও ৪৪১ জন মুক্তিযোদ্ধাকে ছাতা ও খাবার প্রদান করা হয়