গণমাধ্যম মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের রসদ যোগাতে পারে

নিউজ ডেস্ক : আজ এশিয়ান এজ পত্রিকার কার্যালয়ে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও গনমাধ্যমের ভূমিকা বিষয়ে অনুষ্ঠিত এক গোলটেবিল বৈঠকে বাংলাদেশ ব্যাংক এর সাবেক গভর্ণর ড.আতিউর রহমান বলেন যে, গণমাধ্যম মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের রসদ যোগাতে পারে।

এশিয়ান এজ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান এই বৈঠকে এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর প্রফেসর ড. আতিউর রহমান বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন। ড. আতিউর রহমান বলেন ইতিহাস মানুষ খোঁজে এবং তাদের স্বপ্ন ও অংশগ্রহণ তুলে ধরে। আমাদের মুক্তিযুদ্ধে সাধারন মানুষের অংশগ্রহণ ছিল ব্যাপক।

বঙ্গবন্ধু আমাদের মুক্তিযুদ্ধের স্রষ্টা এবং মহানায়ক। তাকে বাদ দিয়ে বাংলাদেশের ইতিহাস লেখার যারা অপচেষ্টা করেছিল তারা হারিয়ে গেছে। তিনি ২৬ শে মার্চ স্বাধীনতা ঘোষনা করেন। একথা ২৭শে মার্চ ১৯৭১ সারা বিশ্বের গনমাধ্যমে প্রচারিত হয়েছে। নতুন প্রজন্মের জন্য মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস লেখা জরুরী। মানিক মিয়া সহ অনেক সাংবাদিক আমাদের মুক্তিযুদ্ধের ভিত্তি তৈরি করেছেন। এখনও গণমাধ্যম গণকবর ও বধ্যভূমি চিহ্নিত করতে সাহায্য করতে পারে। তারাই আমাদের ইতিহাসের রসদ যোগাতে পারে।