খুলনায় ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে আটক তিন

খুলনা প্রতিনিধি: খুলনাতে মাদকের উপর জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহনের অংশ হিসাবে গতকাল বিকালে মাদক দিয়ে ফাসানোর সময় তিনজনকে আটক করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে ডিবি কেএমপি।

গতকাল বিকাল সোয়া চারটার দিকে নগরীর খালিশপুর পাওয়ার হাউজ রোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গুপ্ত সংবাদের মাধ্যমে প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে একটি ইজিবাইককে থামানো হয়।

গতকাল বিকাল চারটা পনের মিনিটের দিকে খালিশপুর কদমতলা মোড়ের দিক হতে তিনজন যাত্রীসহ একটি ইজিবাইক আসতে দেখে ইজিবাইকটি থামানোর জন্য সংকেত দিলে ইজিবাইক চালক ইজিবাইকটি থামায়। তখন ইজিবাইকের পিছনের ছিটে বসে থাকা একজন যাত্রী মোঃ আরমান সাগর (৩৩) হাতে থাকা একটি মোবাইলের প্যাকেট দেখতে পেয়ে উক্ত প্যাকেটে কি আছে জিজ্ঞাসা করিলে সে এলোমেলো কথা বার্তা বলতে থাকে।

সাথে থাকা অপর যাত্রী মোঃ মাসদুর আলম (৪৩) ও মোঃ রবিউল ইসলাম শেখ (২৫) দের জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায় তারা দুইজনই খুলনা ক্লাবের বাবুর্চি। এসময় সন্দেহ জনিত আচরনের জন্য তৎক্ষনাৎ তাদের আটক করা হয়।

অতিঃ উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিবি) এএম কামরুল ইসলাম, পিপিএম এ প্রতিবেদককে জানান যে, এঘটনায় রতন মালো নামক এক ব্যক্তি জড়িত যার বাড়ি ফরিদপুর; যার নামে চট্টগ্রাম বন্দর থানায় একটি ৪০৬ ধারার মামলা আছে।
পরবর্তীতে রতন মালো (৩৮) কে বিআইডিসি রোডস্থ খালিশপুর পাওয়ার হাউজ মোড় হতে আটক করা হয়।

তবে আটকের পর আরমানকে ছেড়ে দেয়া হয়। তাছাড়া জিজ্ঞারসাবাদে আসামীদ্বয়ও স্বীকার করে তারা বাবুর্চি মোঃ মাসদুর আলম (৪৩) কে ইয়াবা ট্যাবলেট দিয়া ফাঁসানোর জন্য পরিকল্পনা করে প্রথম আসামীর নিকট ইয়াবা ট্যাবলেট দিয়ে পাঠিয়েছিল। আসামীদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ এবং সিডিএমএস পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, ০৩ নং আসামী রতন মালো (৩৮) এর বিরুদ্ধে সিএমপি, চট্টগ্রাম বন্দর থানার মামলা নং- ২৬ তারিখ- ১৮/০৯/১৪ খ্রিঃ, ধারা- ৪০৬/১০৯

প্রিন্স, ঢাকা