রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন: ৮ হাজার থেকে ৩৭৪ জনকে বাছাই

নিউজ ডেস্ক:  প্রত্যাবাসনের জন্য বাংলাদেশের দেওয়া ৮ হাজার ৩২ জনের প্রথম তালিকা থেকে যাচাই-বাছাই শেষে ৩৭৪ জনের চূড়ান্ত তালিকা পাঠিয়ে দেশে ফিরিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে সম্মতি দিয়েছে মিয়ানমার। গতকাল ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এ তালিকা পাঠানো হয়। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন চুক্তির পর দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে যাচাই-বাছাইয়ের জন্য ৮ হাজার ৩২ জনের তালিকা উপস্থাপন করে বাংলাদেশ। এ তালিকা থেকে মাত্র ৩৭৪ জনকে যাচাই-বাছাই করে তাদের তথ্য বাংলাদেশকে হস্তান্তর করেছে মিয়ানমার। তবে তাদের রাখাইনের অধিবাসী হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, তালিকাভুক্ত এ ৩৭৪ জন ৯০টি পরিবারের সদস্য। যাদের যাচাই-বাছাই করা হয়েছে তাদের ভেতরে এক বা একাধিকজনকে আরসার সদস্য বলে সন্দেহ করছে। তবে তাদেরও তারা ফেরত নিতে চায়।

চুক্তি অনুযায়ী, এখন তাদের জাতিসংঘের কোনো সংস্থার মাধ্যমে ফেরত পাঠাতে হবে। এ জন্য বাংলাদেশ ইতোমধ্যে ইউএনএইচসিআরের সঙ্গে প্রত্যাবাসন সংক্রান্ত একটি সমঝোতা স্মারক চূড়ান্ত করে ফেলেছে। আশা করা হচ্ছে এটি অতিশিগগির স্বাক্ষরিত হবে।

ফিজিক্যাল অ্যারেজমেন্ট চুক্তিতে বলা হচ্ছে তালিকা হস্তান্তরের দুই মাসের মধ্যে সম্ভব হলে তারা সম্পূর্ণ যাচাই-বাছাই প্রক্রিয়া শেষ করবে। যাচাই-বাছাই শেষ হওয়ার এক মাসের মধ্যে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো যাবে। তবে চুক্তির শর্তানুযায়ী রোহিঙ্গাদের ফেরত যেতে হবে স্বেচ্ছায়।