রেকর্ড গড়া হলো না মুমিনুলের

নিউজ ডেস্ক: প্রথম দিন শেষে অপরাজিত ছিলেন ১৭৫ রানে। আর ৭ রান করলেই নিজের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ১৮১ রানের ইনিংস ছাড়িয়ে নতুন রেকর্ড গড়তে পারতেন। কিন্তু সেটা আর হলো না। বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিনের শুরুতে মাত্র এক রান করেই রঙ্গনা হেরাথের স্পিনে আউট হলেন মুমিনুল হক। ২১৪ বলে ১৬ চার ১ ছক্কায় ১৭৬ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলে ফিরলেন দুর্দান্ত এই ব্যাটসম্যান।

গতকাল বুধবার ৪ উইকেটে ৩৭৪ রান তুলে প্রথম দিনের খেলা শেষ করে বাংলাদেশ। মুমিনুল হক ১৭৫ রানে অপরাজিত ছিলেন। তার ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রান ১৮১। গতকাল মুশফিকের সঙ্গে তার জুটি ছিল ২৩৬ রানের! এটাই এই জুটির সর্বোচ্চ রান।

মুমিনুল সেঞ্চুরি পেলেও অল্পের জন্য ক্যারিয়ারের ৬ষ্ঠবারের মত তিন অংক যেতে পারেননি মুশফিক। ১৯২ বলে ৯২ রান করে আউট হয়ে গেছেন। পরের বলেই ‘গোল্ডেন ডাক’ মারেন লিটন দাস।

বাংলাদেশের হয়ে ডাবল সেঞ্চুরি করেন তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান এবং মুশফিকুর রহিম।

২০১৩ সালে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি করেন মুশফিকুর রহিম। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গলে ২০০ রানের ইনিংস খেলেন তিনি।

এরপর তামিম ইকবাল ২০১৫ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে খুলনায় করেন ডাবল সেঞ্চুরি। সেই ম্যাচে তামিম ২০৬ রান করে আউট হন।

সর্বশেষ ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে নিউজিল্যান্ডে মাটিতে তৃতীয় ডাবল সেঞ্চুরিয়ান হন সাকিব আল হাসান। সেই ম্যাচে ২১৭ রান করেন সাকিব আল হাসান।