শৈত্য প্রবাহের ফলে গৌরীপুরের জনজীবন বিপর্যস্ত

গৌরীপুর প্রতিনিধি: সারাদেশের উপর দিয়ে প্রবাহিত শৈত্য প্রবাহের ফলে কনকনে শীতে ময়মনসিংহের গৌরীপুরেও জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। গত কদিন ধরেই গৌরীপুরে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৬.২ থেকে ৭.০ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে সর্বোচ্চ ২০.০ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত উঠানামা করছে। তবে হিমেল বাতাসের কারণে শীতের তীব্রতা বেড়ে যায়। মানুষ সন্ধ্যার পর পরই ঘরে চলে যাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সারাদিনে সূর্যের মুখ দেখা মিলে এক ঝলক, তবে হিমেল বাতাসের কারণে শীতের তীব্রতা বেড়েছে। তীব্র শীতে গৌরীপুরে জনজীবন বিপর্যস্থ হয়ে পড়েছে। অনেকে আগুন জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছে। সন্ধ্যা থেকে সকাল পর্যন্ত চারদিক কুয়াশায় আচ্ছন্ন থাকে। রাতে বৃষ্টির মতো ঝরছে ঘন কুয়াশা।

তীব্র এই শীতে সবচেয়ে দুর্ভোগে পড়েছে ছিন্নমূল ও নিম্নআয়ের মানুষ। আর বিপাকে পড়েছে দৈনন্দিন খেটে খাওয়া কর্মজীবী সাধারণ মানুষ। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি গৃহপালিত পশু পাখিও ঠান্ডায় কষ্ট পাচ্ছে। শীতের কারনে কৃষক ও শ্রমিকরা সকালে জমির পানিতে নামতে পারছে না। ফলে ব্যহত হচ্ছে রোরো আবাদ। শীতের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় ফুঁটপাতে ও মার্কেটের দোকান গুলোতে গরম কাপড় কেনার জন্য বেড়ে গেছে ক্রেতাদের ভিড়।

শীতের তীব্রতার কারণে শিশু ও বৃদ্ধরা নিউমোনিয়া, জ্বর ও কাশিতে আক্রান্ত হচ্ছে। হাসপাতাল ও ক্লিনিকগুলোতে চিকিৎসা নিতে আসা বৃদ্ধ ও শিশু রোগীদের সংখ্যা বেড়েছে।

সরকারী ও বেসরকারী পর্য্যায়ে অসহায় মানুষকে শীতবস্ত্র, কম্বল দিয়ে সাহায্যের চেষ্টা করছে অনেক সংগঠন।