নানা হুজুরের ইন্তিকালে খেলাফত মজলিসের শোক

হাটহাজারী প্রতিনিধি: হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের নায়েবে আমীর দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদ্রাসার সিনিয়র মুহাদ্দিস দেশবরেণ্য আলেমেদ্বীন আল্লামা শামসুল আলম(নানা হুজুর)-এর ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করে খেলাফত মজলিসের আমীর অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক ও মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের বলেছেন, আল্লামা শামসুল আলম(নানা হুজুর)-একজন বিচক্ষণ প্রথিতযশা আলেমে দ্বীন।

ইলমে নববীর প্রচার ও প্রসারে তার অবদান অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে। তাঁর ইন্তিকালে সৃষ্ট শূন্যতা পূরণ হবার নয়। আজ প্রদত্ত এক যৌথ শোকবাণীতে নেতৃদ্বয় মরহুম মুফতি আল্লামা আল্লামা শামসুল আলম(নান হুজুর)-র রুহের মাগফিরাত কামনা করে মহান আল্লাহর দরবারে দোয়া করেন ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

উল্লেখ্য হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের নায়েবে আমীর দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম হাটহাজারীর সিনিয়র মুহাদ্দিস দেশের প্রবীণ আলেমেদ্বীন আল্লামা শামসুল আলম(নানা হুজুর)- আজ ৬ জানুয়ারি ২০১৮ শনিবার সকাল ১০ টার দিকে হাটহাজারী পৌরসভাস্থ মাদরাসার আবাসিক ভবনের নিজ বাসায় বার্ধক্যজনিত কারণে ইন্তেকাল করেন।

ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মৃত্যুকালে মরহুমের বয়স হয়েছে ৮১বছর। ৪ ছেলে ৪ মেয়ে নাতিনাতনি, হাজার হাজার ছাত্রসহ বহু গুনগ্রাহী রেখে যান।

তিনি হাটহাজারীতে ‘নানা হুজুর’ এবং ঢাকায় ‘চাটগামী হুজুর’ হিসেবে পরিচিত ছিলেন। তিনি ঢাাকর লালবাগ মাদরাসায় দীর্ঘ ২৯ বছর ও নঁওগা পোরশা মাদরাসায় ১৬ বছর এবং হাটহাজারী মাদরাসায় ২০০৪ থেকে মুহাদ্দিস হিসেবে ইলমে নববির খেদমত আঞ্জাম দিয়ে আসছিলেন।

প্রিন্স, ঢাকা