কুমিল্লায় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীতে পাশের হার ৯২.৯৩

কুমিল্লা প্রতিনিধি: কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার পাশের হার ৯২.৯৩ শতাংশ। এবছর প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ১ লাখ ১৪ হাজার ৭৮৯ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ১ লাখ ৬হাজার ৭৩৬জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ৪৭ হাজার ৩জন বালক এবং ৫৯হাজার ৭৩৩জন বালিকা পাশ করেছে। বালকের পাশের হার ৯২.৪৬ এবং বালিকাদের পাশের হার ৯৩.৩৯ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৮হাজার ২৬জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ৩হাজার ১১৪জন বালক এবং ৪হাজার ৯১২জন বালিকা জিপিএ-৫ পেয়েছে।

এদিকে, এবছর কুমিল্লায় জেএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ৬২ দশমিক ৮৩ শতাংশ। এর মধ্যে ছেলেদের পাসের হার ৬৪ দশমিক ৮৬ শতাংশ আর মেয়েদের পাসের হার ৬১ দশমিক ৩৯ শতাংশ। এবছর জেএসসি পরীক্ষায় মোট ২লক্ষ ৬১হাজার ৭৫৩জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ১লক্ষ ৬৪ হাজার ৪৫৬জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ৭০হাজার ৩৭৪জন ছেলে এবং ৯৪ হাজার ৮২জন মেয়ে পাশ করেছে।

গত দুই বছরে ধারাবাহিকভাবে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডে ক্রমান্বয়ে কমেছে পাশের হার। ২০১৪ সালে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডে জেএসসি পরীক্ষায় পাশের হার ৯৩.৭৫ শতাংশ। তা কমে ২০১৬ সালে পাশের হার দাড়ায় ৮৯.৬৮ শতাংশ। এদিকে ২০১৭ সালে কুমিল্লায় জেএসসি পরীক্ষায় পাশের হার দাড়িয়েছে ৬২.৮৩ শতাংশ। যা গত বছরের তুলনায় ২৬ দশমিক ৮৫ শতাংশ কম।

জিপিএ-৫ কমেছে অর্ধেকের বেশি
কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডে পাশের হার কমার পর গতবছরের তুলনায় এবছর অর্ধেকেরও বেশি কমেছে জিপিএ ৫ প্রাপ্তির হার। এবছর মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ৮হাজার ৮৭৫জন শিার্থী। এর মধ্যে ৩হাজার ৩৭৫জন ছেলে এবং ৫হাজার ৫০০জন মেয়ে জিপিএ-৫ পেয়েছে। এদিকে ২০১৫ সালে জিপিএ-৫ পেয়েছিল ২০হাজার ৭৪৭জন শিক্ষার্থী, তা কমে ২০১৬সালে জিপিএ-৫ পায় ১৯হাজার ১৮৬জন। এবছর জিপিএ-৫ কমেছে ১০হাজার ৩১১টি। এরআগে ২০১৩ সালে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৬ হাজার ৯৫ জন, ২০১৪ সালে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৭ হাজার ২৬৪জন এবং ২০১৫ সালে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২০ হাজার ৭৪৭ জন।

পাশের হারে ছেলেরা জিপিএ-৫ প্রাপ্তিতে মেয়েরা এগিয়ে
শিক্ষাবোর্ডে প্রকাশিত জেএসসি পরীক্ষার ফলাফলে পাশের হারের দিক থেকে এগিয়ে আছে ছেলেরা এবং জিপিএ-৫ প্রাপ্তির দিক থেকে এগিয়ে আছে মেয়েরা। এবছর ১লাখ ৮হাজার ৫০৪জন ছেলে পরীক্ষা দিয়ে পাশ করেছে ৭০ হাজার ৩৭৪জন। ছেলেদের পাশের হার ৬৪.৮৬ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩হাজার ৩৭৫জন। এদিকে এবছর ১ লাখ ৫৩ হাজার ২৪৯জন মেয়ে পরীক্ষা দিয়ে পাশ করেছে ৯৪ হাজার ৮২ জন। মেয়েদের পাসের হার ৬১ দশমিক ৩৯ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫ হাজার ৫০০জন।

প্রিন্স, ঢাকা