বিনামূল্যে বই বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক: শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিয়ে ২০১৮ শিক্ষাবর্ষের বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগামী ১ জানুয়ারি সারাদেশে ‘জাতীয় পাঠ্যপুস্তক উৎসব’ উদযাপন করা হবে।

শনিবার সকালে প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবনে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিয়ে এই কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

আগামী ১ জানুয়ারি শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে টানা নবমবারের মতো সারাদেশে একযোগে উদযাপন করা হবে পাঠ্যপুস্তক উৎসব। এর আওতায় এ বছর বিনামূল্যে ৩৫ কোটির বেশি নতুন বই বিতরণ করা হবে প্রাক-প্রাথমিক, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের প্রায় সাড়ে ৪ কোটি শিক্ষার্থীর মাঝে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সংশ্নিষ্ট সূত্র জানায়, গত বছরের তুলনায় এবার শিক্ষার্থীর সংখ্যা বেড়েছে ১০ লাখ ৭০ হাজার ৯৬৬ জন। তাই এ বছর ৭১ লাখ ৯৩ হাজার ৩৬৯টি বইও বেশি ছাপতে হয়েছে। বর্তমান সরকারের টানা দুই মেয়াদে গত আট বছরে প্রাথমিক, মাধ্যমিক, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মাঝে ২২৫ কোটি ৪৫ লাখ ১১ হাজার ৭৫০টি বই ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে। এবার ৪ কোটি ৪২ লাখ ৪ হাজার ১৯৭ শিক্ষার্থী পেতে যাচ্ছে ৩৫ কোটি ৪২ লাখ ৯০ হাজার ১৬২ কপি নতুন বই।

পাঠ্যপুস্তক উৎসবে অনাকাঙ্ক্ষিত বিশৃঙ্খলা এড়াতে ২০১৫ সালের পর থেকে শিক্ষা ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় পৃথকভাবে কেন্দ্রীয় উৎসবের আয়োজন করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় এবার বছরের প্রথম দিনে আজিমপুর গভর্নমেন্ট গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে মাধ্যমিক স্তরের পাঠ্যবই বিতরণের উৎসব করবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ আয়োজন উদ্বোধন করবেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

একই দিনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে পৃথক অনুষ্ঠান করবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার প্রাথমিক স্তরের বই বিতরণের এ কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন।

প্রসঙ্গত, বর্তমান সরকার ২০১০ শিক্ষাবর্ষ থেকে বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ শুরু করেছে।