ঈদে মিলাদুন্নবী (স.) আরশ আজিম

রাউজান প্রতিনিধি: ফটিকছড়ি তেলপারই সৈয়্যদ বাড়ী দরবারের সাজ্জাদানশীন পীরে তরিকত আলহাজ্ব আল্লামা সৈয়দ মুহাম্মদ মছিহুদ্দৌলাহ (মুজিআ) বলেছেন, পবিত্র জসনে ঈদে মিলাদুন্নী (দ.) স্বয়ং আল্লাহ নিজেই এক লক্ষ চব্বিশ হাজার আম্বিয়ায়ে কেরামকে নিয়ে আরশ আজিমে করেছেন।

তিনি বলেন, দুনিয়ায় যে ঈদে মিলদুন্নবী করা হচ্ছে সেটি আমাদের জন্য আমরা করছি। কারন ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপন করা কিংবা যথাযত ঈদে মিলাদুন্নবী (দ.) বাতারতীব সাজানোর ক্ষমতা আমাদের নেই। তাই ইমামে আলা হযরত বলেছেন আশেকে রাসুলের ঈমান হচ্ছে প্রতিদিন পবিত্র জসনে ঈদে মিলাদুন্নবী (দ.) উদযাপন করা।

তিনি ১০ ডিসেম্বর রাত ১১টায় রাউজান পশ্চিম ডাবুয়া আমির চৌধুরী জামে মসজিদ ময়দানে ইমাম আলা হযরত ও গাজী শেরে বাংলা (রঃ) স্মৃতি সংসদ ও এলাকাবাসীর যৌথ উদ্যোগে ঈদে এ মিলাদুন্নবী (স.) উদ্যাপন উপলক্ষে আজিমুশশান সূন্নী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন।

ফটিকছড়ি জামেউল উলুম ফাযিল মাদ্রাসার সিনিয়র আরবি অধ্যাপক লেখক আল্লামা নূর মুহাম্মদ রেজবীর সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সভাপতি হাফেজ মওলানা পেয়ার মুহাম্মদের পরিচালনায় এতে উদ্বোধক ছিলেন বিশিষ্ট সাংবাদিক ও ঐ মসজিদের খতিব মাওলানা এম বেলাল উদ্দিন মাইজভান্ডারী।

এতে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন মাহফিলের সার্বিক তত্ত্বাবধায়ক দি. পেনিনসুলা চিটাগাং লিঃ এর ইন্টারনাল অডিট ম্যানেজার মুহাম্মদ নূরুল হায়দার। প্রধান ওয়ায়েজীন ছিলেন ছিপাতলী গাউছিয়া মঈনীয়া কামিল মাদ্রাসার প্রধান মুফাচ্ছির আলহাজ্ব আল্লামা গাজী শফিউল আলম নেজামী (মুজিআ)। বিশেষ ওয়ায়েজীন ছিলেন মাওলানা মুহাম্মদ সিরাজুল মোস্তাফা কাদেরী, মাওলানা আবুল বশর মাইজভান্ডারী।

উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা নুরুল ইসলাম রেজবী, মাওলানা কলিম উল্লাহ নূরী,সুপার মাওলানা মুনছুর আলম রেজবী,মওলানা মুনছুর আলম আনছারী,মওলানা হাফেজ নুরুল আবছার,আলহাজ্ব আবদুস সালাম মাস্টার,আলহাজ্ব আবদুল মালেক মেম্বার,রফিক সওদাগর,হাফেজ মওলানা মুহাম্মদ সালাউদ্দিন,মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম মাইজভান্ডারী,মুহাম্মদ শরিফ প্রমুখ। মাহফিল শেষে মিলাদ ক্বিয়াম ও আখেরী মোনাজাত করেন পীরে তরিক্বত আল্লামা সৈয়দ মুহাম্ম্দ মসিহুদ্দৌলাহ।