কে লিখবে সেই কবির মত কবিতা

এম.এস প্রিন্স

কড়া সূর্যে বিলিন হওয়া শিশিরের মত জানি একদিন চলে যাব-
                                               আর ধরা তলে।
লাল সবুজের অক্ষরে- শুধু লেখা রবে তোমার বুকে আমার নাম।
সেদিন বোঝবে – খোঁজবে মৌচাকে ধানের চারার বনে
আর বকুলের নূরে- হাত বোলাবে আমার অক্ষয় প্রেমের স্বরবর্ণে।
বলেই জানালো বিদায়ী প্রণাম- পৃথিবীর বুকে পড়ে আছে সব।
অনাবিল প্রেমের ছন্দে আমি আনমনে বিচরণ করে চলছি তাতে
স্তব্ধ পরিবেশ- তরুণ তরুণিরা সবুজ তৃণের মত তারায় ফোটবে
সে প্রমোদ ভবন বোধগম্যের বাইরে।
কারণ তাঁর রেখে যাওয়া পুষ্পই যথেষ্ট নয়- কাক গুলো বেদনায় নীল।
চাহিদার দাঁড় এসে দাঁড়িয়েছে দুঃসময়ের তীরে।
তুমি যোগান দাতা বলে সৌন্দর্যমাখা জনপদ, দ্বীপমালয়, নবাব মহলে
তাঁকে খোঁজতে গিয়েও শূন্য হাতেই ফিরতে হয়
তাকাতে হয় ব্যথা-ভরা নয়নে তাঁর অসমাপ্ত স্মৃতির পাণ্ডুলিপির পানে।

সোনালি নবীন যুবার চোখে- একটি কবিতাও লিখে না আর কেউ।
আভিজাত্যের জুড়ি মিলবে কেমনে? স্বপ্নেরা নিচ তলাতেই ঝিকিমিকি-
করছে করেও যাবে- যত দিন না সবুজ প্রবাহের মত সঙ্গীতে গা ভাসবে
যত দিন না তাঁর মত কবিতায় লিখবে- আমরা মানুষ সবাই সবার তরে।