ছোটবেলা থেকেই এক অন্যের বন্ধু তথা সহপাঠী

নিউজ ডেস্ক: ক্রিকেট আর গ্ল্যামারের সম্পর্ক বেশ মধুর। বিশেষ করে ভারতে। মনসুর আলী খান পতৌদি-শর্মিলা ঠাকুর থেকে শুরু করে যুবরাজ-হেজল,হরভজন-গীতা থেকে সাম্প্রতিক জাহির-সাগরিকা। উদাহরণ কম নেই। আর বিরাট-অনুশকা তো রয়েছেনই। গ্ল্যামারের এই দৌড় যে শুধু বলিউডের ক্ষেত্রেই সীমাবদ্ধ তা কিন্তু নয়।

ইন্টারনেটে সামাজিক যোগাযোগের দৌলতে অনেক ক্রিকেটারের সহধর্মিনীই নিজের আলাদা পরিচিতি গড়ে তুলেছেন। এক্ষেত্রে অগ্রগামী অবশ্যই ধোনি-পত্নী সাক্ষী। স্বামীর চেয়ে কিছু কম নেই তার অনুসারীর সংখ্যা। তার থেকে বেশি বই কম নয় অনুশকার ফ্যান ফলোয়িং। বলিউড অভিনেত্রী বলে কথা। কিন্তু এত ফলোয়ার,ফ্যান,অনুরাগীরাও এতদিন জানতে পারেননি সাক্ষী-অনুশকার সম্পর্কের গোপন আঁতাতের কাহিনি। জানতে পারেনি, আজ থেকে নয় ধোনি-পত্নী ও বিরাটের প্রেমিকা ছোটবেলা থেকেই এক অন্যের বন্ধু তথা সহপাঠী।

এতদিন বাদে এই গোপন তথ্য ফাঁস হল অনুশকা শর্মার একটি ফ্যান পেজের মাধ্যমে। যাতে পুরো প্রমাণ দেওয়া রয়েছে। শেয়ার করা হয়েছে সাক্ষী-অনুশকার ছোটবেলার ছবি। দু’জনে স্কুলের অন্যান্য বন্ধুদের সঙ্গে পোজ দিয়েছেন। কেবল ছেলেবেলা পর্যন্তই সীমাবদ্ধ ছিল না এই বন্ধুত্ব। তরুণ বয়সেও একসঙ্গে দু’জনকে দিব্যি হ্যাংআউট করতে দেখা গিয়েছে। রয়েছে সে ছবিও।

সংবাদ প্রতিদিনের খবরে জানানো হয়, ভারতীয় সেনায় কাজ করতেন অনুশকার বাবা। সেই সূত্রেই, দেশের বিভিন্ন স্কুলে পড়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে অনুশকার। জানা গিয়েছে, অাসামে যখন অনুশকার বাবা বদলি হয়ে যান তখন সেখানকার যে কনভেন্ট স্কুলে অনুশকা ভর্তি হন সেখানেই সাক্ষী পড়তেন। সে সময় থেকেই বন্ধু দু’জনে। অথচ এতদিন একথা খুব বেশি লোক জানতেন না। কখনও দু’জনে প্রকাশ্যে এই বন্ধুত্ব সেভাবে জানানও দেননি। তাহলে কী পুরনো বন্ধুত্বের সম্পর্ক এখন আর তেমন গাঢ় নেই? এই প্রশ্ন তুলেছে কেউ কেউ। তবে নেটদুনিয়ার বেশিরভাগ বাসিন্দারাই সমস্ত প্রশ্ন ভুলে মজেছেন প্রাক্তন ও বর্তমান ভারত অধিনায়কের ফার্স্টলেডিদের অতীতের এই ছবিতে।