দাবার প্রতিটি চাল মেধা শাণিত করে – যুব মহিলা লীগ নেত্রী দোলা হাসান

স্পোর্টস রিপোর্টার : বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের সেন্ট্রাল কমিটির সদস্য, বিশিষ্ঠ নারী উদ্যোক্তা, ক্রীড়ানুরাগী দোলা হাসান বলেছেন, দাবা খেলার মাধ্যমে তরুণ সমাজকে মেধাবী বানাতে হবে। এজন্য লেখাপড়ার পাশাপাশি দাবা খেলার বিস্তার ঘটাতে হবে। আমি মনে প্রাণে বিশ্বাস করি দাবার প্রতিটি চালে মেধা শাণিত করে, বুদ্ধি বৃত্তি’র উন্মেষ ঘটায়।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে অমিকন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় এবং বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের আয়োজনে ”অমিকন ৪৩তম জাতীয় ’এ’ দাবা চ্যাম্পিয়নশিপ-২০১৭” এর উদ্বোধন এবং পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে দোলা হাসান এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রথমেই আমি দাবা ফেডারেশনের কর্মকর্তাবৃন্দকে অভিনন্দন জানাচ্ছি এমন একটি গৌরবময় অনুষ্ঠানে আমাকে প্রধান অতিথি করার জন্যে। এই সঙ্গে আমি নিজেও গর্ববোধ করছি এই অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণ পেয়ে। তিনি বলেন, দাবা খেলার আবেদন আঞ্চলিক থেকে জাতীয় এবং জাতীয় থেকে আন্তজার্তিক পর্যায়ে বিস্তৃত। একটু বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে খেললে এই খেলার মাধ্যমে আন্তজার্তিক অঙ্গণে খুব সহজেই পরিচিতি অর্জন করা যায়।

দোলা হাসান আরো বলেন, দাবা খেলাকে এগিয়ে নিয়ে এবং এর প্রসার ঘটিয়ে তরুণদের বুদ্ধি বৃত্তি’র উন্মেষ ঘটিয়ে দেশের আগামী প্রজন্মকে এগিয়ে নিতে হবে। এজন্য সকল পর্যায়ে লেখাপড়ার পাশাপাশি দাবা খেলার বিস্তার ঘটাতে হবে। একই সঙ্গে দাবা খেলার ব্যাপক প্রশিক্ষণ নিয়ে আন্তজার্তিক গ্রান্ড মাষ্টার খেতাব অর্জনে পদক্ষেপ নিতে হবে।

অনুষ্টানের বিশেষ অতিথি অমিকন গ্রুপের চেয়ারম্যান এবং দাবা ফেডারেশনের চেজ ইন স্কুল চেয়ারম্যান ইঞ্জি.মেহেদী হাসান বলেন, দাবার মাধ্যমে মেধাবী তারুণ্য গড়ে তুলতে হবে। দাবা খেলার প্রসার ঘটিয়ে আরো গ্রান্ড মাষ্টার তৈরী করতে হবে। যাতে আন্তজার্তিক পর্যায়ে বাংলাদেশের মানসম্মান আরো বৃদ্ধি পায়। তিনি বলেন, অমিকন গ্রুপ স্পোর্টস সেক্টরে দাবার মতো মেধাবৃত্তিক খেলার প্রসারে পৃষ্ঠপোষকতা অব্যাহত রাখবে। এছাড়াও দাবা খেলাকে সিলেবাসে অন্তরভুক্ত করার ব্যাপারেও তিনি চেষ্ঠা তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন।

অনুষ্টানে আরো বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শাহাব উদ্দিন শামীম, টুর্নামেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান এম শহিদ উল্যাহ প্রমুখ।