শাকিবকে নিয়েই হজে যাবেন অপু

একমাত্র সন্তান আব্রাম খান জয়কে প্রকাশ্যে নিয়ে আসার পর থেকেই স্বামী শাকিব খানের সঙ্গে সম্পর্ক মোটেই ভালো যাচ্ছে না চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসের। বিয়ের খবর প্রকাশ হওয়ার পর কখনোই তাদের এক ছাদের নিচে থাকার কথাও শোনা যায়নি। আবার গত বৃহস্পতিবার আহত হয়ে জয়কে দেশে রেখে কলকাতায় যাওয়া নিয়ে আলোচিত এ জুটির মধ্যে ‍শুরু হয়েছে নতুন যুদ্ধ।

এই যুদ্ধের মধ্যেই অপু শোনালেন চমকপ্রদ এক খবর। স্বামী শাকিব খানকে নিয়ে হজে যাওয়ার ইচ্ছার কথা জানান এ অভিনেত্রী।

অপু বলেন, আমি নামাজ আদায় করি, রোজা পালন করি। হজে যাওয়ারও ইচ্ছে আছে। তবে আমি একা নই। আমার স্বামী শাকিবকে নিয়ে হজে যেতে চাই। শাকিব ছাড়া আমি হজে যাবো না। আর আমি সবসময় চাই, শাকিবের সঙ্গে সংসার করতে। এটা সে ভালো করে জানে।

গত শুক্রবার সন্তান জয়কে কাজের মেয়ে শেলীর কাছে রেখে ঘরে তালা দিয়ে অপু কলকাতায় যান। এমন খবর পেয়ে ছেলেকে দেখতে গুলশানে নিকেতনের বাসায় যায় শাকিব খান। কিন্তু সেখানে গিয়ে ছেলের সঙ্গে দেখা করতে না পেরে তিনি ফিরে আসেন।

শাকিব অভিযোগ করেন, ছেলের প্রতি মায়া থাকলে তাকে এভাবে কাজের মেয়ের কাছে বাইরে থেকে তালাবদ্ধ অবস্থায় রেখে কলকাতা যেতে পারতো না অপু। মা হিসেবে সে বিগ জিরো। তার বিরুদ্ধে শিগগিরই সিদ্ধান্ত নেব।

অন্যদিকে শাকিবের অভিযোগ অস্বীকার করে অপু বলেন, বাইরে থেকে তালাবদ্ধ করে আসিনি। আমি নেই বলেই শেলি জয়কে নিয়ে ভেতর থেকে তালাবদ্ধ করে আছে। তাছাড়া, জয়কে ঢাকায় শাকিবের কোনো আত্মীয়-স্বজনের কাছে রেখে আসতে ভরসা পাননি বলে দাবি করেন তিনি।

আবার কাছাকাছি থাকলেও শাকিবের কোনো আত্মীয়-স্বজন নাকি তাঁর বা জয়ের কোনো খোঁজখবর নেন না বলেও অভিযোগ করেন অপু।

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে শাকিবের গুলশানের বাসায় গোপনে বিয়ে হয় শাকিব-অপু জুটির। ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর কলকাতার একটি হাসপাতালে জন্ম হয় তাদের সন্তান আব্রাম খান জয়ের। গোপন রাখা হয় এই বিষয়টিও। অবশেষে চলতি বছরের ১০ এপ্রিল বিকেলে সাত মাসের ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে একটি টিভি চ্যানেলের লাইভ অনুষ্ঠানে হাজির হয়ে সব প্রকাশ করেন অপু বিশ্বাস। এ ঘটনায় শাকিব প্রথমে ক্ষুব্ধ হলেও পরে সবকিছু স্বীকার করেন এবং অপুর সঙ্গে সুখে সংসার পাতবেন বলে জানান। কিন্তু সেই সুখের সংসার এখনো পাতা হয়নি।