গণতন্ত্রকে হরণ করেছে সরকার: মির্জা ফখরুল

বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘সরকার গণতন্ত্রকে হরণ করেছে। দেশে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকতে পারবে না বলেই একক নির্বাচনের জন্য বিভিন্ন ফন্দি চালাচ্ছে। কিন্তু বিএনপিহীন নির্বাচন দেশের জনগণ ও বিশ্ববাসী মানবেন না।’

রোববার দুপুরে লালমনিরহাটের বুড়িরবাজার খেলার মাঠে জেলা বিএনপি আয়োজিত সামাজিক অপরাধমুক্ত ‘আলোকিত লালমনিরহাট’ আন্দোলনের সাইকেল র‌্যালির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমাদের আন্দোলন-সংগ্রাম করে জনগণের ভোটাধিকার পুনরুদ্ধার করতে হবে। আমরা বলছি নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ ও নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন করতে। যে নিরপেক্ষ, নির্দলীয় সরকার নির্বাচন কমিশনকে সহায়তা দিয়ে নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচন সম্পন্ন করে গণতান্ত্রিক সরকার উপহার দেবে।

সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘যখন কোনো রাজনৈতিক দল কোনো কর্মসূচি দেন, সেখানে বিএনপি কোনো কর্মসূচি দেয় না। এটা বিএনপি’র রাজনৈতিক শিষ্টাচার। তাই রংপুর ঠাকুরপাড়ায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনের কর্মসূচি স্থগিত করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ঘোষণার সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, ওরা (আওয়ামী লীগ) বরাবরেই সাফ জানিয়ে দেয়। বিগত ২০১৪ সালেও সাফ জানানোর পরেও তারা আলোচনায় বসতে বাধ্য হয়েছিল। এবারও তারা সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন। আমরা আশা করি সরকারের শুভবুদ্ধির উদয় হবে।

এ সময় মির্জা ফখরুলের সঙ্গে ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু, আবদুস সালাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল হাবিব দুল, ক্রীড়া সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, সদস্য ব্যারিস্টার হাসান রাজীব প্রধান, জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান বাবলা, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান একেএম মমিনুল হক।

পরে মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদসহ ১৩টি সামাজিক অপরাধ দমনে জনসচেতনতামূলক ওই বাইসাইকেল র‌্যালিটি বুড়িরবাজার থেকে লালমনিরহাট কুড়িগ্রাম সড়ক হয়ে বড়বাড়ি শহীদ আবুল কাশেম মহাবিদ্যালয় মাঠে গিয়ে শেষ হয়।