স্বাধীনতাবিরোধীদের বিজয় দিবসে অতিথি করা যাবে না

নিউজ ডেস্ক: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, আগামী ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবসের কোনো কর্মসূচিতে স্বাধীনতাবিরোধীরা অতিথি হতে পারবে না। আমরা বিগত সময়ে দেখেছি স্বাধীনতাবিরোধীদের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অতিথি করা হয়েছে। অপরদিকে মহান বিজয় দিবসকে সামনে রেখে সারাদেশে রাস্তার ওপর কোনও তোরণ নির্মাণ করা যাবে না। এছাড়া রাজধানীর সভাসহ সারাদেশে কোনও অনুষ্ঠান করতে হলে প্রশাসনকে ৭ দিন আগে জানাতে হবে। আর সন্ধ্যার পর কেউ আউটডোর প্রোগ্রাম করতে চাইলে অবশ্যই প্রশাসনের অনুমতি নিতে হবে।

বৃহস্পতিবার সচিবালয় মহান বিজয় দিবস পালন উপলক্ষে নিরাপত্তা বিষয়ক আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

যার ফেসবুক আইডি থেকে আপত্তিকর স্ট্যাটাস দেয়ার অভিযোগ তুলে রংপুরের গঙ্গাছড়ার ঠাকুরপাড়ায় হামলা চালানো হয়েছে সেই টিটু রায়কে গ্রেফতারের কারণ নিয়েও কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। টিটুর ব্যাপারে তিনি বলেন, টিটু রায়কে না ধরলে আমরা কিভাবে প্রমাণ করবো তিনি যে নির্দোষ। গ্রেফতারকৃত টিটু রায় নির্দোষ হলে তাকে ছেড়ে দেয়া হবে।

রংপুরের ঘটনায় তদন্তের অগ্রগতির ব্যাপারে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, টিটু রায় যে মোবাইলফোন ব্যবহার করতেন সেটা থেকেই ফেসবুকে আপত্তিকর ছবিসহ কোটেশন এসেছিল। সেটাকে সূত্র ধরে এই ঘটনাটি ঘটেছে। আমরা জানতে পেরেছি টিটু রায় ৪-৫ বছর ধরে ওই এলাকায় থাকেন না।

সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, প্রাথমিকভাবে আমাদের মনে হচ্ছে এটা একটা গভীর ষড়যন্ত্র। কিন্তু তদন্তের আগে আমরা অফিসিয়ালি কিছু বলছি না। টিটু রায়ের ফোনটি ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য সিআইডিতে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় তার (টিটু রায়) যদি সম্পৃক্ততা থাকে তবে আইন অনুযায়ী তার বিচার হবে।

বিজয় দিবসে নিরাপত্তার ব্যাপারে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, সাভার স্মৃতিসৌধ ও জাতীয় প্যারেডসহ অন্যান্য অনুষ্ঠানের নিকটবর্তী এলাকায় কোনো ধরনের সাউন্ডবক্স বাজানো যাবে না। সারাদেশে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় স্বাস্থ্য বিভাগের মাধ্যমে বিজয় দিবস ও এই জাতীয় অনুষ্ঠানে প্রয়োজনীয় মেডিক্যাল টিম কাজ করবে। সব সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্বশাষিত প্রতিষ্ঠানে এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফ্লাগ রুলস অনুসায়ী জাতীয় পতাকা উত্তোলন করবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন, সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব ফরিদ উদ্দিন আহম্মদ চৌধুরীসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।